Category: ছোটো ছোটো রেসিপি

সবসময়ই একটা জিনিস লক্ষ্য করে আসছি যে আমাদের দেশী রান্নায় আমরা যে সমস্থ মসলা ব্যবহার করি, সেগুলির অনেকগুলির সাথেই আমরা পরিচিত না। আমি এই ভিডিওটি দিচ্ছি এই মসলাগুলির সাথে রাঁধুনীদের পরিচয় করিয়ে দেবার জন্য। সাথেই দিয়েছি পাঁচ ফোঁড়ন বা ডাল মসলা তৈরী করার পারফেক্ট রেসিপি। আশাকরি আপনাদের কাজে লাগবে।

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

পাঁচ ফোঁড়ন তৈরী করতে লাগছে

  1. কালো জিরা ১ চা চামুচ
  2. মেথি ১ টেবিল চামুচ
  3. কালো সরিষা ১ চা চামুচ
  4. সাদা সরিষা ১ চা চামুচ
  5. ১ টেবিল চামুচ মৌরী
  6. রাধুনী মসলা ১ চা চামুচ
  • দুটো সরিষা হাতের নাগালে না থাকেলে যে-কোনো একটা সরিষা ১ টেবিল চামুচ দিয়ে দেবেন।
  • রাধুনী মসলা না পাওয়া গেলে ১ চা চামুচ গোটা ধনে অথবা ১ চা চামুচ গোটা জিরা দিয়ে দিতে পারেন।

দেশী মসলা বা রান্নার উপকরণ সম্পর্কে জানতে এই দু’টি উইকিপিডিয়ার পেজ দেখতে পারেন:
১: https://en.wikipedia.org/wiki/List_of_Bangladeshi_spices
২: https://en.wikipedia.org/wiki/Bengali_spices_and_their_English_names

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

স্টেক কিংবা ইংলিশ কাটলেটের সাথে অসাধারণ এক রকমের সস পরিবেশন করা হয়। এখন সেই ক্রিম অফ মাশরুম সসটি তৈরী করে দেখাচ্ছি।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লেগেছে –

  1. ৬/৭ টি মাশরুম
  2. ০.৫ কাপ ক্রিম
  3. ৫০ গ্রাম বাটার
  4. ২ চা চামুচ পেঁয়জ কুচি
  5. ১ চা চামুচ রসুন কুচি
  6. স্বাদ অনুযায়ী লবণ (আমি ০.৫ চা চামুচ দিয়েছি)
  7. ০.৫ চা চামুচ গোল মরিচের গুঁড়ি

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

মাটরশুঁটি খেতে কার না ভালো লাগে! কিন্তু এই মটরশুঁটি সারা বাছর পাওয়াটা কষ্টকর। তাই এই ভিডিওতে দেখাচ্ছি কিভাবে সারা বছর মটরশুঁটি সংরক্ষণ করে রাখে খাওয়া যায়।

মটরশুঁটি সংরক্ষণ করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

সংরক্ষণের জন্য লাগবে
– ছেলার পরে প্রতি কেজি মটরশুঁটির জন্য ১ চা চামুচ চিনি

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

কন্টিনেন্টাল রেস্টুরেন্টগুলিতে ফ্রাই বা স্টেকের সাথে একটা বিশেষ সস পরিবেশন করে, যেটাকে লেমন বাটার সস বলে। অনেকেই এই রেসিপিটাকে সিক্রেট রাখতে চান, কিন্তু আমি এখন এটা তৈরী করে দেখাচ্ছি।

পিঠা তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. ৪/৫ টা রসুনের কোয়া
  2. বাটার ১০০ গ্রাম
  3. ১ চিমটি লবণ
  4. ১ টেবিল চামুচ লেবুর রস
  5. ১ টেবিল চামুচ মধু
  6. ২ টেবিল চামুচ ক্রিম
  7. ০.৫ চা চামুচ গোল মরিচের গুঁড়ি

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের চ্যানেলে ক্রিম চিজ তৈরী করে দেখানোর জন্য অনেক রিকোয়েস্ট ছিলো। তৈরী করে দেখাচ্ছি ঘরে বসে খুব সহজ উপায়ে ক্রিম চিজ তৈরী করার পদ্ধতি। আশাকরি রেসিপিটি আপনাদের অনেক কাজে লাগবে। এই প্রসেসে ১ লিটার দুধ দিয়ে আনুমানিক ১ কাপ ক্রিম চিজ হবে।

ক্রিম চিজ তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের চ্যানেলে ক্রিম চিজ তৈরী করে দেখানোর জন্য অনেক রিকোয়েস্ট ছিলো। তৈরী করে দেখাচ্ছি ঘরে বসে খুব সহজ উপায়ে ক্রিম চিজ তৈরী করার পদ্ধতি। আশাকরি রেসিপিটি আপনাদের অনেক কাজে লাগবে। এই প্রসেসে ১ লিটার দুধ দিয়ে আনুমানিক ১ কাপ ক্রিম চিজ হবে।

ক্রিম চিজ তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের দেশে চালের আটা দিয়ে রুটি, পিঠা সহ অনেক কিছু তৈরী করা হয়। তবে সবার আগে জানতে হবে চালের আটার কাই তৈরী করা। তাই নতুন রাধুঁনীদের জন্য নিয়ে আসলাম চালের আটার কাই তৈরীর রেসিপি…

চালের আটার কাই তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

কাই তৈরী করতে লাগছে

  1. চালে আটা ২ কাপ
  2. পানি ২ কাপ
  3. লবণ ১ চা চামুচ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

খাবারের বৈচিত্র অনেকটাই নির্ভর করে সাথে কিরকম সস বা চাটনি দিয়ে খাচ্ছি। এই গ্রিন সসটা যা দিয়ে খাবেন তা দিয়েই ভালো লাগবে। আমরা সাধারণত অন্থন, ডাম্পলিং, চিতই পিঠা বা যেকোনো ভাজাভুজি পাকড়া নিয়ে আসবে দারুন বৈচিত্র।

চাটনি তৈরীর পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

গ্রিন সস তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. কাঁচা মরিচ – ৫ টি
  2. রসুনের কোয়া – ২ টি
  3. ধনে পাতা – ০.৫ কাপ
  4. পুদিনা পাতা – ০.৫ কাপ
  5. লবণ – ০.২৫ চা চামুচ
  6. বিট লবণ – ০.২৫ চা চামুচ
  7. গোল মরিচের গুঁড়ি – ০.২৫ চা চামুচ
  8. সাদা ভিনেগার – ০.২৫ কাপ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

গরম মশলার গুঁড়ি আমাদের দেশী রান্নার একটি অপরিহার্য অংশ। গরম মশলার গুঁড়ি ছাড়া দেশী রান্নার কথা ভাবাই যায়না। তবে সঠিক রেসিপি না জানায় বা সহজলভ্যতার জন্য আমরা চট্ করে বাজার থেকে গরম মশলার একটা প্যাকেট কিনে নিয়ে আসি। কিন্তু সব উপকরণ হাতের কাছে থাকলে মাত্র ১০ মিনিটের কম সময়ে তৈরী করা যায় বাংলাদেশী অথেন্টিক গরম মশলার গুঁড়ি।

চলুন দেখি বাংলাদেশী অথেন্টিক গরম মশলার গুঁড়ি তৈরীর পদ্ধতি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

গরম মসলার গুঁড়ি করতে যা যা লাগবে:

  1. কালো গোল মরিচ ২ টেবিল চামুচ
  2. লং ১ টেবিল চামুচ
  3. দারুচিনি প্রায় ১০ সেন্টিমিটার
  4. ছোটো এলাচ ১৫ টি
  5. মৌরী ১ চা চামুচ
  6. জিরা ২ টেবিল চামুচ
  7. বড় এলাচ ১০ টি
  8. ধনিয়া ২ টেবিল চামুচ
  9. তেজ পাতা ৩/৪ টি
  10. জয়ফল ১ টি

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের ট্রেডিশনাল রান্নাগুলিতে পিঁয়াজ বেরেস্তার যেরকম প্রয়োজন হয়, ঠিক সেরকম রান্না শেষে পরিবেশনেও বেরেস্তার ভালো কদর আছে। আজকে তৈরী করে দেখাচ্ছি পিয়াঁজ বেরেস্তা।

বলে রাখা ভালো যে একসময় কিন্তু পিঁয়াজ বেরেস্তায় চিনি দেয়ার প্রচলণ থাকলেও আমরা এখন বেরেস্তায় চিনি ব্যবহার করিনা। আপনারা যদি চিনি দিতে চান তাহলে এক কাপ বেরেস্তায় আধা চা চামুচ চিনি মেশাতে পারেন।

চলুন দেখি পিঁয়াজ বেরেস্তা তৈরীর পদ্ধতি:

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক https://fb.com/rumanaranna পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।