Tagged: ডিম

অনেক অনেক অনুরোধ ছিলো পারফেক্ট চটপটি তৈরী করে দেখানো। মোটামুটি সবারই একটাই রিকোয়েস্ট, রেডিমেড মসলা না, ঘরে মসলা তৈরী করে যেনো চটপটি তৈরী করে দেখাই। আমি এই একটা পর্বেই স্পেশাল চটপটি মসলা ও পারফেক্ট চটপটি তৈরী করে দেখাচ্ছি।

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

  • সেদ্ধর প্রিপারেশনে –
    1. ৫০০ গ্রাম চটপটির ডাল
    2. ২৫০ গ্রাম আলু
    3. ২ টি ডিম
  • ২৫০ গ্রাম ডাল সেদ্ধ করতে হবে ৬ কাপ পানি দিয়ে চটপটির ডালকে অনেকে চানা ডাল, মটর ডাল বলে, আবার ডাবলি ডাল দিয়েও চটপটি তৈরী করা যায়।
  • তেঁতুলের টক মাড় তৈরী করতে
    1. ২৫০ গ্রাম তেঁতুল
    2. ১ কাপ পানি
  • চটপটির স্পেশাল মসলা
    1. জিরা ১ টেবিল চামুচ
    2. ধনে ১ টেবিল চামুচ
    3. মৌরি/মিষ্টি জিরা ১ টেবিল চামুচ
    4. মেথি ১ চা চামুচ
    5. রাঁধুনী মসলা ১ চা চামুচ
    6. কালো জিরা ০.৫ চা চামুচ
    7. সাদা সরিষা ০.৫ চা চামুচ
    8. লবঙ্গ ১৫ টি
    9. গোল মরিচ ০.৫ চা চামুচ
    10. শুকনো মরিচ ১০/১২ টি
    11. বিট লবণ ১ চা চামুচ
  • চটপটির টক মিক্স করতে
    1. তেঁতুলের মাড়টুকু
    2. বিট লবণ ২ টেবিল চামুচ
    3. চিনি ২ টেবিল চামুচ
    4. ভাজা জিরা গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
    5. চটপটির মসলা ১ টেবিল চামুচ
    6. টেলে নেয়া শুকনো মরিচ আধা ভাঙ্গা করে ১ টেবিল চামুচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমার চ্যানেলে ডিম আলুর চপের অনেক অনেক রিকোয়েস্ট ছিলো। সবারই একটা কথা, চপটা যেনো একটু স্পেশাল হয়। আর সেজন্য আজকে তৈরী করে দেখাচ্ছি স্পেশাল ডিম আলুর চপ। চপটার একটা ভালো দিক হচ্ছে, প্রিপারেশন নিয়ে অন্তত মাসখানেক ডিপ ফ্রিজে রেখে দেয়া যায়। পরে খাওয়ার আগে রুম টেম্পারেচারে এনে ভেজে ফেললেই হলো। আর ভাজতেও বেশী সময় লাগেনা যেহেতু সব প্রিপারেশন আগেই নেয়া আছে। তাই মেহমানদারির জন্য এই চপটা খুবই স্পেশাল, আর সেজন্যই এই নামটা দেয়া।

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. ডিম ৪ টি
  2. আলু ০.৫ কেজি
  3. পেঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ
  4. লবণ ১ চা চামুচ
  5. গোল মরিচের গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
  6. বিট লবণ ০.৫ চা চামুচ
  7. শুকনো মরিচ ৫/৬ টি
  8. গরম মশলা ১ চা চামুচ

আর বেসন দিয়ে করতে চাইলে বেসনের রেসিপিটি দেখতে হবে এই লিঙ্ক থেকে।
তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

মাংসের কোফতার একটা রেসিপি আমার চ্যানেলে আগে থেকেই আছে। কিন্তু দর্শকদের নিয়মিত কিছু প্রশ্ন থাকে যে কেনো কোফতা ভাজার সময় খুলে যায় বা কি করলে কোফতা বানিয়ে সংরক্ষণ করে পরে খাওয়া যাবে ইত্যাদি ইত্যাদি। আমি এই পর্বে কোফতা বানানোর প্রসেসটা একটু সহজ করে দেখাচ্ছি আর আমি এখানে যেভাবে দেখিয়েছি, হুবহু সেই প্রসেসে তৈরী করলে ইনশ’আল্লাহ্ ভাজার সময় কোফতা আর ভেঙ্গে যাবেনা, এবং খেতেও অনেক ক্রিসপি লাগবে।

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. গরু/খাসির মাংসের কিমা ২ কাপ
  2. পাউরুটি ২ পিস্
  3. পেঁয়াজ কুচি ০.৫ কাপ
  4. ডিম ১ টি
  5. কাঁচা মরিচ কুচি ২ টেবিল চামুচ
  6. পুদিনা পাতা ২ টেবিল চামুচ
  7. লেবুর রস ১ টেবিল চামুচ
  8. গোল মরিচের গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
  9. ভাজা জিরার গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
  10. গরম মসলার গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  11. লবণ ১ চা চামুচ
  12. আদা বাটা ১ চা চামুচ
  13. রসুন বাটা ১ চা চামুচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

মাংসের টিকিয়া, কম বেশী আমরা মাঝে মাঝেই খাই। তবে মাছ দিয়ে যে কত মজার টিকিয়া তৈরী করা যায় আর খেতে যে কত মজা হয় সেটাই তৈরী করে দেখাচ্ছি এই রেসিপিতে। আমি রুই মাছ দিয়ে রেসিপিটি তৈরী করেছি, তবে এই রেসিপিটি যে-কোনো দেশী বিদেশী মাছ দিয়ে তৈরী করা সম্ভব।

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  • ডাল সেদ্ধ করতে ১ চা চামুচ
    1. ছোলা বুটের ডাল ১ কাপ
    2. কাঁচা মরিচ ১০/১২ টি
    3. রসুন বাটা ১ চা চামুচ
    4. আদা বাটা ১ চা চামুচ
    5. চিমটি পরিমাণ হলুদের গুঁড়ি
    6. লবণ ১ চা চামুচ
    7. ধনে গুঁড়ি ১ চা চামুচ
    8. দারুচিনি ৫/৬ সেঃমিঃ
    9. ২ টি তেজপাতা
    10. ৩/৪ টি ছোটো এলাচ
    11. লং ৩/৪ টি
  • মাছ সেদ্ধ করতে
    1. মাছ ১ কেজি
    2. লবণ: ০.২৫ চা চামুচ
    3. হলুদের গুঁড়ি চিমটি পরিমাণ
  • টিকিয়া বানাতে
    1. পুদিনা পাতা ১০/১২ টি
    2. ১ কাপ পেঁয়াজ বেরেস্তা
    3. ১ টি ডিম
    4. ০.৫ চা চামুচ গোল মরিচের গুঁড়ি
    5. ১ চা চামুচ চিনি
    6. ১ টেবিল চামুচ লেবুর রস
    7. ১ চা চামুচ ভাজা জিরার গুঁড়ি

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

একটা খুবই সহজ রেসিপি দেখাচ্ছি, যেটা তৈরী করতে মোটেও ঝামেলা নেই এবং খেতেও অনেক সুস্বাদু। বাংলাদেশী ভ্যান/হোটেল স্টাইলে ডিমের চপ তৈরী করে দেখাচ্ছি –

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

ডিমে চপ তৈরী করতে যতগুলি চপ করতে চান তার অর্ধেক পরিমাণ ডিম নিলেই হবে। আর পারফেক্টভাবে বেসন তৈরী করা এবং মাখানোর রেসিপি আছে এই লিঙ্কে।

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

ছোট্ট সোনামনিদের জন্য আমরা কত কিছুই না করে থাকি। আর সোনামনিরা যখন সারাদিন না খেয়ে রোযা থাকে, তখন আমাদেরও মন চায় তাদের পছন্দের খাবার ইফতারের প্লেটে তুলে দিতে। সোনামনিদের খুশি মানেই আমরা খুশি। আর তাই তৈরী করে দেখাচ্ছি পপ চিকেন। হাড় ছাড়া এই চিকেন ফ্রাইটি সোনামনিরা ভীষণ পছন্দ করবে।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  • চিকেন প্রিপিয়ার করতে
    1. হাড় ছাড়া মুরগির মাংস ২৫০ গ্রাম
    2. ডিম ১ টা
    3. আদা বাটা ০.৫ চা চামুচ
    4. রসুন বাটা ০.৫ চা চামুচ
    5. গোল মরিচের গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
    6. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
    7. সয় সস ২ টেবিল চামুচ
    8. কর্ণ ফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামুচ
  • কোটিং প্রিপিয়ার করতে
    1. ১ কাপ ময়দা
    2. ব্রেড ক্রাম্ব ০.২৫ কাপ
    3. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
    4. লবণ ০.২৫ চা চামুচ
    5. গোল মরিচের গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

বাচ্চাদেরকে টিফিনে কি দেয়া যায়, বা বিকেলের নাশতায় কি দেয়া যায়, সে নিয়ে চিন্তার অন্ত নেই। আর ঘরে যদি একটা চকলেট ব্রাউনি তৈরী করা থাকে, তাহলে মায়েদের আর টেনশন নেই। অন্তত সাত দিনের জন্য তো টেনশন ফ্রি থাকা যাবে। অন্যান্য কেক তৈরী করার চাইতে ঝামেলা একটু বেশী হলেও বাচ্চারা অন্য সব কেক থেকে ব্রাউনিটাই বেশী পছন্দ করে। অন্তত আমার বাচ্চাতো ব্রাউনি পেলে আর কিছুই চায়না।

চকলেট ব্রাউনি তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লেগেছে

  1. চকলেট চিপস ২০০ গ্রাম
  2. ময়দা ১ কাপ
  3. আইসিং সুগার ১ কাপ
  4. বাটার ২০০ গ্রাম
  5. ডিম ৫ টি
  6. ভ্যানিলা এসেন্স ১ চা চামুচ
  7. বেকিং পাউডার ০.৫ চা চামুচ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

বাচ্চাদের স্কুলে কি টিফিন দেয়া যায় এ নিয়ে মা-এর টেনশনের শেষ নাই। এটা আমার চাইতে ভালো কেউ বুঝবে বলে মনে হয়না। টিফিনটা একই সাথে স্বাস্থ্য সম্মত হতে হবে এবং অনেক সময় ধরে যাতে ভালো থাকে সেই ব্যবস্থাও থাকতে হবে। কাপকেক বানিয়ে রাখলে অন্তত ৭ দিন টিফিন নিয়ে টেনশন থাকেনা। তাই তৈরী করে দেখাচ্ছি চিজ কাপকেক।

ক্রিম চিজ তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লেগেছে
– ময়দা ১.৫ কাপ
– ডিম ২ টি
– চিজ ১ কাপ
– কনডেন্সড মিল্ক ০.৫ কাপ
– বাটার ১০০ গ্রাম
– চিনি ০.২৫ কাপ
– বেকিং পাউডার ১ চা চামুচ
– ভ্যানিলা এসেন্স ০.৫ চা চামুচ

আমি এখানে চ্যাদার চিজ দিয়ে করেছি। আপনারা চাইলে চ্যাদার, ইডাম, ফ্যাটা, পারমাসন চিজ দিয়ে করতে পারেন। তবে মোজারেলা চিজ দিয়ে এটা হয়না।

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

ব্যাচেলারদের জন্য আমরা সবসময়ই আমাদের চ্যানেলে সহজ এবং বৈচিত্রময় রেসিপি নিয়ে আসার চেষ্টা করি। খুব কম সময়ে তৈরী করা যায় এই সেদ্ধ ডিমের ভর্তার রেসিপিটি নিয়ে এসেছি আমাদের ব্যাচেলার দর্শকদের জন্য। বুয়ার হাতের একঘেয়ে রান্না খেতে খেতে যারা ক্লান্ত, তাদের এই রেসিপিটি খুবই পছন্দ হবে আশা করছি।

অনথন তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. ডিম ২ টি
  2. শুকনো মরিচ ৪/৫ টি
  3. ০.৫ কাপ পেঁয়াজ কুচি
  4. ১ টেবিল চামুচ সরিষার তেল
  5. ০.৫ চা চামুচ লবণ
  6. ১ টেবিল চামুচ ধনে পাতা কুচি

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের চ্যানেলে সর্বোচ্চ ২য় অনুরোধ ছিলো একটা কেকের রেসিপি। চকলেট করবো না ভ্যানিলা করবো এই চিন্তা করতে করতে মাথায় আসলো রেড ভ্যালভেট কেকের কথা। এই কেকটাতে একসাথে চকলেটের টেস্ট এবং ভ্যানিলার ফ্লেভার পাওয়া যায়। খেতে খুবই মজা লাগে কেকটি, তাই আমার দর্শকদের জন্য প্রথম কেকের রেসিপি হিসেবে নিয়ে আসলাম রেড ভ্যালভেট কেক।

রেড ভ্যালভেট কেক তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লেগেছে

  • কেকের ব্যাটার তৈরী করতে
    1. ২০০ গ্রাম বাটার
    2. ২ টি ডিম
    3. ২ কাপ চিনি
    4. ২ টেবিল চামুচ কোকো পাউডার
    5. ২ চা চামুচ ভ্যানিলা এসেন্স
    6. ২.৫ কাপ ময়দা
    7. ২ চা চামুচ বেকিং সোডা
    8. ২ কাপ বাটার মিল্ক
    9. ২ টেবিল চামুচ লাল রঙ (আমি বিট-এর রঙ নিয়েছি)
  • ক্রিম চিজ ফ্রস্টিং তৈরী করতে
    1. ২ কাপ আইসিং সুগার
    2. ২০০ গ্রাম বাটার
    3. ১ কাপ ক্রিম চিজ
    4. ১ টেবিল চামুচ ভ্যানিলা এসেন্স

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।