Tagged: পোলাওর চাল

ইলিশ মাছ নিয়ে বাঙ্গালীর রসনার যেনো শেষ নেই, আছে স্বাদের সেরা মজার মজার রেসিপি। কোনোটি তৈরী করা সহজ আবার কোনোটি একটু জটিল। সময়ের অভাবে আমরা সবসময়ই সহজ রেসিপিগুলি অনুশীলন করি। আর সেরকমই একটা সহজ রেসিপি নিয়ে আসলাম ইলিশ ভুনা খিচুড়ি।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে

  • খিচুড়ির মধ্যে
    1. পোলাওর চাল ২ কাপ
    2. মুগ ডাল ১ কাপ
    3. পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ
    4. পেঁয়াজ বেরেস্তা ০.৫ কাপ
    5. কাঁচা মরিচ ৫/৬ টি
    6. রান্নার তেল ০.৫ কাপ
    7. তেজ পাতা ১টি
    8. দারুচিনি ২ টুকড়ো (আনুমানিক ১০ সেঃমিঃ)
    9. বড় এলাচ ১টি
    10. ছোটো এলাচ ৩/৪ টি
    11. লং ৫/৬ টি
    12. রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
    13. আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
    14. কাঁচা জিরা বাটা ১ চা চামুচ
    15. হলুদের গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
    16. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
    17. ধনে গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
    18. লবণ ২ চা চামুচ
  • ইলিশ ম্যরিনেড করতে
    1. ইলিশ মাছ ৪ টুকড়ো (আনুমানিক ৪৫০ গ্রাম)
    2. টক দৈ ০.৫ কাপ
    3. জিরা বাটা ১ চা চামুচ
    4. পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামুচ
    5. সরিষা বাটা ১ টেবিল চামুচ
    6. ধনে গুঁড়ি ১ চা চামুচ
    7. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
    8. হলুদের গুঁড়ি চিমটি পরিমাণ
    9. লবণ ১ চা চামুচ
    10. সরিষার তেল ১ টেবিল চামুচ
    11. পেঁয়াজ বেরেস্তা ০.৫ কাপ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

এখন তৈরী করে দেখাচ্ছি আমাদের সকলে প্রিয় পোলাও। তবে সাধারণ পোলাও না, সবজি পোলাও। অনেক মা অভিযোগ করেন তাদের বাচ্চারা সবজি খেতে চায়না! আমার দৃড় বিশ্বাস আমার রেসিপি ফলো করে এভাবে সবজি পোলাও তৈরী করলে বাচ্চারা আর সবজিকে না বলবেনা। আর শুধু বাচ্চা কেনো, পরিবারের ছোটো বড় সবারই ভীষণ ভালো লাগবে এই সবজি পোলাও রেসিপিটি।

সবজি পোলাও তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

সবজি পোলাও তৈরী করতে যা যা লাগছে:

  1. পোলাওর চাল ২ কাপ (৫০০ গ্রাম)
  2. ৫ রকমের সবজি দিয়েছি ০.৫ কাপ করে
    • ফুল কপি
    • গাজর
    • লাল ক্যাপসিকাম
    • সবুজ ক্যাপসিকাম
    • শিম
  3. পেঁয়াজ কুচি ০.৫ কাপ
  4. ৬/৭ টি কাঁচা মরিচ
  5. তেজ পাতা ২ টি
  6. দারুচিনি ৮-১০ সেঃ মিঃ
  7. ছোটো এলাচ ৪টি
  8. চাইনিজ স্টার মশলা ২ টি (না দিলেও হয়)
  9. মটরসুঁটি ১ কাপ
  10. ৫/৬ টি লবঙ্গ
  11. লবণ
    • ০.৫ চা চামুচ সবজিতে
    • ১ চা চামুচ পোলাওর মধ্যে
  12. আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  13. রসুন বাটা ১ চা চামুচ
  14. রান্নার তেল ০.৫ কাপ
  15. ঘি ২ টেবিল চামুচ
  16. ফুল ক্রিম দুধ ১ কাপ
  17. পানি ৪ কাপ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

এখন ডাম্পলিং চিকেনের তৃতীয় পর্বে দেখাচ্ছি ডাম্পলিং চিকেন ফ্লাওয়ার। এই ডাম্পলিং চিকেন ফ্লাওয়ারটা দেখতে অনেকটা আমাদের কদম ফুলের মতো। আর খেতেও ভীষণ জুসি এবং টেস্টি হয়।

ডাম্পলিং চিকেন ফ্লাওয়ার তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

ডাম্পলিং তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. ১.৫ কাপ বাসমতি চাল
  2. মুরগির মাংসের কিমা ২ কাপ
  3. পেঁয়াজ কুঁচি ১ কাপ
  4. ডার্ক সয় সস ১ টেবিল চামুচ
  5. ফিশ সস ২ টেবিল চামুচ (হাতের নাগালে না পেলে ১ চা চামুচ লবণ দিয়ে দেবেন)
  6. ২ টেবিল চামুচ সিসিম ওয়েল (অন্য রান্নার তেলও ব্যবহার করতে পারেন)
  7. গোল মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  8. ১ টেবিল চামুচ রসুন কুঁচি
  9. কর্ণ ফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামুচ

গ্রিন সসের রেসিপি এই লিঙ্কে…

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের এই উপমহাদেশে যে কত রকমের বিরিয়ানির প্রচলন আছে, সেই হিসাব হয়তো উইকিপিডিয়াতেও নেই। তবে বিরিয়ানির প্রস্তুত প্রণালী যত জটিল স্বাদ ততই মজার। যেমন এখন যেই রেসিপিটি দেখেচ্ছি সেটা তৈরী করতে প্রায় ৩০ রকমের উপকরণ লেগেছে। তাই বলে কি, তৈরী করতে অনেক ঝামেলা? মোটেও না। যদি উপকরণগুলি হাতের কাছে থাকে, তাহলে এটা কোনো বিষয়ই না, আর সেজন্যই সবাইকে সহজভাবে হায়দ্রাবাদি চিকেন বিরিয়ানি তৈরীর প্রণালী দেখাতে আমার এই ভিডিও।

হায়দ্রাবাদি চিকেন বিরিয়ানি তৈরীর প্রণালীটি দেখি ভিডিওতে:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

হায়দ্রাবাদি চিকেন বিরিয়ানি তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. বাসমতি চাল – ৫০০ গ্রাম
  2. মুরগির মাংস – ১ কেজি
  3. পেঁয়াজ – ১.২৫ কাপ বেরেস্তার জন্য প্রয়োজন মতো
  4. টক দৈ – ১ কাপ
  5. দুধ – ২ টেবিল চামুচ
  6. কাজু বাদাম – ১৫/২০ টি
  7. কিসমিস – ১৫/২০ টি
  8. ধনে গুঁড়ি – ১ চা চামুচ
  9. শুকনো মরিচের গুঁড়ি – ১ চা চামুচ
  10. লবণ
    1. মাংস মেরিনেশনে – ১ চা চামুচ
    2. চাল সেদ্ধ করতে প্রয়োজন মতো
  11. আদা বাটা – ১ টেবিল চামুচ
  12. রসুন বাটা – ১ টেবিল চামুচ
  13. তেঁজ পাতা – ২/৩ টি
  14. দারুচিনি – প্রায় ৫/৬ সেন্টিমিটার
  15. বড় এলাচ – ২ টি
  16. ছোটো এলাচ – ৪/৫ টি
  17. লং – ৫/৬ টি
  18. কালো গোল মরিচের গুঁড়ি – ২ চা চামুচ
  19. গরম মশলার গুঁড়ি – ১ চা চামুচ
  20. ভাজা জিরা গুঁড়ি – ১ চা চামুচ
  21. কাঁচা মরিচ – ৪/৫ টি
  22. লেবুর রস – প্রায় ২ চা চামুচ
  23. রান্নার তেল
    1. মাংস মেরিনেশনে – ০.৫ কাপ
    2. চাল সেদ্ধ করতে – ২ চা চামুচ
    3. পেঁয়াজ বেরেস্তা করতে প্রয়োজন মতো
  24. জাফরান – প্রায় ১ গ্রাম
  25. শাহি জিরা – ১ চা চামুচ
  26. পুদিনা পাতা – প্রয়োজন মতো
  27. ধনে পাতা – প্রয়োজন মতো
  28. গোলাপ জল – ২ টেবিল চামুচ
  29. ক্যাওড়ার জল – ২ টেবিল চামুচ
  30. ঘি – ০.৭৫ কাপ

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

গরম মশলা তৈরীর জন্য সব একসাথে গরম তাওয়ায় হালকা টেলে নিয়ে গুঁড়ো করেছি।

আমার চ্যানেলে ট্রেডিশনাল কাচ্চি বিরিয়ানির ভিডিওটি আপলোড করার পরে প্রচুর রিকোয়েস্ট এসেছে কিভাবে প্রসেসটি আরেকটু সহজ করা যায়। যেমন, আটা দিয়ে হাঁড়িটা সিল না করে সহজ কিছু করা যায় কি-না।

অনেক আগে আমার শ্বশুর-আব্বার কাছ থেকে শিখেছিলাম কিভাবে গামছা ব্যবহার করে বিরিয়ানি দমে দিতে হয়। এখন সেটাই দেখাচ্ছি গামছা দমে কাচ্চি বিরিয়ানি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

কাচ্চি বিরিয়ানি তৈরী করতে যা যা লেগেছে –

  1. খাসির মাংস ১ কেজি
  2. সুগন্ধি পোলাওর চাল ০.৫ কেজি
  3. পিঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ
  4. রান্নার তেল ০.৫ কাপ
  5. টক দৈ ১ কাপ
  6. রসুন বাটা ২ টেবিল চামুচ
  7. আদা বাটা ১.৫ টেবিল চামুচ
  8. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  9. লবণ স্বাদ অনুযায়ী প্রয়োজন মতো
  10. ফুল ক্রিম দুধ ১ কাপ
  11. বাটা জয়ফল ১ চা চামুচ
  12. জয়ত্রী প্রায় ২ গ্রাম
  13. গরম মশলার গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  14. ঘি
    1. বিরিয়ানিতে ২ টেবিল চামুচ
    2. আলু ঝলসাতে ১ চা চামুচ
  15. জর্দ্দার রঙ প্রয়োজন মতো (আপনারা চাইলে জাফরান ব্যবহার করতে পারেন)
  16. আলু ০.৫ কেজি
  17. শাহী জিরা ১ চা চামুচ
  18. আলু বোখারা ৪/৫ টি
  19. কেওড়ার জল ২ টেবিল চামুচ
  20. গোলাপ জল ২ টেবিল চামুচ

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

আশাকরছি রেসিপিটি সবার কাজে আসবে এবং বিরিয়ানি রান্না নিয়ে আর কারও কোনো আতঙ্ক থাকবেনা। 🙂

স্খান ভেদে বিরিয়ানি বা বিরানির অনেক রকমের নাম আছে যেমন: পাঞ্জাবি মুর্গ বিরিয়ানি, ক্যালকাটা বিরিয়ানি, কাচ্চি বিরিয়ানি, মুরগ পোলাও। এগুলির মধ্যে আমাদের ঢাকায় তথা বাংলাদেশে যেটা সবচাইতে জনপ্রিয়ভাবে তৈরী হয় বা খাওয়া হয়, সেটা হলো কাচ্চি বিরিয়ানি। বলা যেতে পারে কাচ্চি বিরিয়ানি আমাদের বাংলাদেশী বিরিয়ানি। তেহারীর সাথে বিরিয়ানির মুল পার্থক্য হলো বিরিয়ানিতে মাংসের টুকরা বেশ বড় হয়।

বিরিয়ানি নাম শুনলেই জিভে যেমন পানি চলে আসে, ঠিক তেমনি রাঁধুনীরা যারা কখনো বিরিয়ানি তৈরী করেননি, একটু হলেও ভয় পেয়ে যান, এই ভেবে যে না জানি বিরিয়ানি তৈরীর প্রক্রিয়া কত কঠিন। সেই ভয় দুর করতেই এখন দেখাচ্ছি বাংলাদেশের ট্রেডিশনাল কাচ্চি বিরিয়ানির রেসিপি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

কাচ্চি বিরিয়ানি তৈরী করতে যা যা লেগেছে –

  1. খাসির মাংস ১ কেজি
  2. সুগন্ধি পোলাওর চাল ০.৫ কেজি
  3. পিঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ
  4. রান্নার তেল ০.৫ কাপ
  5. টক দৈ ১ কাপ
  6. রসুন বাটা ২ টেবিল চামুচ
  7. আদা বাটা ১.৫ টেবিল চামুচ
  8. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  9. লবণ স্বাদ অনুযায়ী প্রয়োজন মতো
  10. ফুল ক্রিম দুধ ১ কাপ
  11. বাটা জয়ফল ১ চা চামুচ
  12. জয়ত্রী প্রায় ২ গ্রাম
  13. গরম মশলার গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  14. ঘি
    1. বিরিয়ানিতে ২ টেবিল চামুচ
    2. আলু ঝলসাতে ১ চা চামুচ
  15. জর্দ্দার রঙ প্রয়োজন মতো
  16. আলু ০.৫ কেজি
  17. শাহী জিরা ১ চা চামুচ
  18. আটা প্রয়োজন মতো
  19. আলু বোখারা ৪/৫ টি
  20. কেওড়ার জল ২ টেবিল চামুচ
  21. গোলাপ জল ২ টেবিল চামুচ

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

আশাকরছি রেসিপিটি সবার কাজে আসবে এবং বিরিয়ানি রান্না নিয়ে আর কারও কোনো আতঙ্ক থাকবেনা। 🙂

আমাদের দেশে ঐতিহ্যবাহী মিষ্টান্ন বা ডেসার্টের তালিকায় খুব সম্ভবত ফরনীর নাম সবার উপরের দিকে আছে। ঠিকমতো তৈরী করতে পারলে ফিরনীর কাছাকাছি কিছু নেই। অনেকে পায়েস, ফিরনী আর ক্ষিরের মধ্যে পার্থক্য করতে তাল গোল পাকিয়ে ফেলেন, আমি বিষয়টা সহজ করে বুঝিয়ে দেই।

  • ফিরনী: চালের খুদ বা গোটা চাল ভেঙ্গে নিয়ে দুধ দিয়ে তৈরী করতে হবে।
  • পায়েস: গোটা চাল দুধের মধ্যে সেদ্ধ করে তৈরী করতে হবে। এবং
  • ক্ষির: পায়েসের মতো, কিন্তু সরারসি দুধের সাথে খেজুরের রস এবং গুঁড় দিয়ে তৈরী করতে হবে। ক্ষির চালের পাশাপাশি কাওনের চাল দিয়ে তৈরী করারও একটা ট্রেডিশন রয়েছে।

আশাকরি আর কনফিউশন থাকবেনা। তবে সবগুলির মধ্যে ফিরনী তৈরীর পদ্ধতিটাই আমাদের জীবনযাত্রায় বেশ সহজ, তাই ফিরনী তৈরীর প্রণালীটি দেখাচ্ছি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লেগেছে

  1. ফুল ক্রিম দুধ – ৩ লিটার
  2. সুগন্ধী পোলাওর চান – ০.৫ কেজি
  3. চিনি – ৫০০ গ্রাম (প্রয়োজনে কম বেশী করতে হবে)
  4. তেজ পাতা – ২ টি
  5. ছোটো এলাচ – ৪ টি
  6. দারুচিনি – প্রায় ৪ সেন্টিমিটার
  7. পেস্তা – ১০/১২ টি
  8. ক্যাওড়ার জল – ২ টেবিল চামুচ
  9. কিসমিস – ২০ গ্রাম
  10. অন্যান্য শুকনো ফল – প্রয়োজন মতো

ভালো খাবার খাওয়ার জন্য বাঙালীর বিশেষ দিনক্ষণ লাগেনা। আমাদের দেশে ইলিশ মাছ এবং ইলিশ মাছ দিয়ে তৈরী রেসিপির সম্ভবত শেষ নেই! আর আমি এবার তৈরী করেছি ইলিশ পোলাও। বলা হয়ে থাকে আমাদের উপমহাদেশের খাবার-দাবার বেশীরভাগ আসে মুঘলদের কাছ থেকে। সত্যই যদি তাই হয়, তাহলে সম্ভবত ইলিশ পোলাওটা মুঘলদের রেসিপিকে বাঙালীরা রিমিক্স করেছে। যেটা যেভাবেই আসুক আর যে যাই করুক, ভালো খাওয়া নিয়ে কথা!

চলুন কথা না বাড়িয়ে রেসিপিটি তৈরীর প্রণালী দেখি-

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

ইলিশ মাছ রান্নায় লেগেছে:

  1. ইলিশ মাছ – ৬ টুকরো
  2. টক দৈ – আধা কাপ
  3. আধা কাপ বেরেস্তার জন্য প্রয়োজন মতো পেয়াঁজ
  4. কাঁচা মরিচ – ৪ টি
  5. কাঁচা মরিচ বাটা – ১ চা চামুচ
  6. রসুন বাটা – ১ চা চামুচ
  7. জিরা বাটা – ১ চা চামুচ
  8. লবণ – প্রয়োজন মতো (আমি ১ চা চামুচ দিয়েছি)
  9. চিনি – আধা চা চামুচ
  10. রান্নার তেল – ৪ টেবিল চামুচ

পোলাও তৈরীতে লেগেছে:

  1. সুগন্ধী পোলাওর চাল – ২ কাপ
  2. কালো গোল মরিচ – ৮/১০ টি
  3. লবঙ্গ – ৪/৫ টি
  4. দারুচিনি – প্রায় ৪ ইঞ্চি
  5. ছোটো এলাচ – ৩/৪ টি
  6. তেঁজ পাতা – ২টি
  7. পেঁয়াজ কুঁচি – আধা কাপ
  8. আদা বাটা – ১ চা চামুচ
  9. রসুন বাটা – ১ চা চামুচ
  10. লবণ – স্বাদ অনুযায়ী (আমি ১ চা চামুচ দিয়েছি)
  11. কাঁচা মরিচ – ৫/৬ টি
  12. রান্নার তেল – ৪/৫ টেবিল চামুচ

ইতিহাসের পাতায় যত পেছনে যাওয়া হোক না কেনো, পোলাও-এর নাম বিভিন্নভাবে অভিজাত খাবারের তালিকায় উঠে এসেছে সবসময়। অনেকে অনেকভাবে পোলাও তৈরী করেন, আমি নিজেও আমার মা-খালাদের কাছ থেকে তিন-চার রকমের পোলাও রাঁধতে শিখেছি। প্রথম কিস্তি হিসেবে এখন দেখাচ্ছি প্লেইন পোলাও তৈরীর রেসিপি। খুবই সিম্পল এই রেসিপিটি আশাকরি সবারই ভালো লাগবে।

চলুন দেরী না করে ভিডিওতে দেখি এই রেসিপিটি তৈরীর উপায়:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লেগেছে-

  1. সুগন্ধি চাল – ৩ কাপ
  2. তেল
    • পোলাওর জন্য আধা কাপ
    • বেরেস্তার জন্য প্রয়োজন মতো
  3. তেঁজ পাতা – ২টি
  4. দারুচিনি – প্রায় ৪ ইঞ্চি
  5. ছোটো এলাচ – ৪/৫ টি
  6. লং – ৫/৬ টি
  7. পেঁয়াজ
    • পোলাওর জন্য আধা কাপ
    • বেরেস্তার জন্য প্রয়োজন মতো
  8. আদা বাটা – ১ চা চামুচ
  9. রসুন বাটা – ১ চা চামুচ
  10. ফুল ক্রিম দুধ – ১ কাপ
  11. লবণ – স্বাদ অনুযায়ী (আমি ৩ চা চামুচ দিয়েছি)
  12. কাঁচা মরিচ – ৫/৬ টি
  13. মটরশুঁটি – প্রয়োজন মতো (আমি এখানে ২৫ গ্রামের মতো দিয়েছি)
  14. ঘি – ৩ চা চামুচ
  15. ক্যাওড়ার জল – ৩ চা চামুচ

বাংলাদেশের একটি ঐতিহ্যবাহী খাবার তেহারী। গরু বা খাসি দুই রকমের মাংস দিয়ে তেহারী করা গেলেও গরুর তেহারীর প্রচলন সবচাইতে বেশী। অনেকেই মনে করেন তেহারী রান্না করা মনেহয় কঠিন কিছু, আমি এবার তৈরী করে দেখাচ্ছি বিফ  বা গরু মাংসের তেহারী:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তেহারীর মাংস তৈরী করতে যা যা লাগছে

  1. গরু মাংস ১ কেজি
  2. আদা বাটা ২ টেবিল চামুচ
  3. রসুন বাটা ২ টেবিল চামুচ
  4. সরিষা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  5. জয়ফল + জয়ত্রী বাটা ১ চা চামুচ
  6. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ২ চা চামুচ
  7. টক দৈ আধা কাপ
  8. লবণ ১ চা চামুচ
  9. সরিষার তেল ১ কাপ
  10. তেঁজ পাতা ৩ টি
  11. ছোটো এলাচ ৩/৪ টি
  12. দারুচিনি ২/৩ টুকড়ো
  13. লবঙ্গ ৪/৫ টি
  14. গোল মরিচ ১০/১২ টি
  15. পেঁয়াজ বাটা দেড় কাপ
  16. জিরা গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  17. গরম মশলার গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ

তেহারীর পোলাও তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. সুগন্ধী চাল ৩ কাপ (৭৫০ গ্রাম)
  2. ঘি আধা কাপ
  3. তেজ পাতা ২/৩ টি
  4. দারুচিনি ২/৩ টুকড়ো
  5. ছোটো এলাচ ৪/৫ টি
  6. লবঙ্গ ৩/৪ টি
  7. গোল মরিচ ৭/৮ টি
  8. পেঁয়াজ বড় আকারের ১ টি
  9. আদা বাটা ১ চা চামুচ
  10. রসুন বাটা ১ চা চামুচ
  11. লবণ ১ চা চামুচ
  12. কাঁচা মরিচ ১৫/২০ টি
  13. ক্যওড়ার জল ১ চা চামুচ