Tagged: ঘি

ঝামেলা ছাড়াই মাত্র ৪৫ মিনিট থেকে ১ ঘন্টার মধ্যেই তৈরী করে ফেলা যাই এই মজাদার নারকেলের নাড়ু। কিন্তু কোনো এক অজানা কারণে চমৎকার এই রেসিপিটি আমাদের রান্নাঘর থেকে হারিয়ে গিয়েছে। বিশেষ বাঙ্গালী অনুষ্ঠান ছাড়া এই রেসিপিগুলির কথা আর শোনাই যায়না। নিজেকে খুব ভাগ্যবতী মনেহচ্ছে এই রেসিপিটি আপনাদের স্ক্রিনে আনতে পেরে। আশা করছি এই ডিজিটাল মাধ্যমে এই খাবারগুলি যুগের পর যুগ বেঁচে থাকবে।

নারকেলের নাড়ু তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. কোরানো নারকেল ২ কাপ
  2. ১ কাপ চিনি অথবা গুড়
  3. ঘি ১ টেবিল চামুচ
  4. ১ টি তেজপাতা
  5. ২ টুকরো দারুচিনি
  6. ২ টি ছোটো এলাচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

মুড়ির মোয়ার মনেহয় নতুন করে কোনো পরিচয়ের প্রয়োজন নেই। যদিও এটা এই রেসিপিটিও রান্নাঘরথেকে বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে, তারপরও নিজের কাছে একটা শান্তি লাগছে যে এই রেসিপিটি যুগ যুগ ধরে আপনাদের স্ক্রিনে বেঁচে থাকবে, পরবর্তী প্রজন্ম এরকম মজার একটা রেসিপি শিখতে পারবে।

মুড়ির মোয়া তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. মুড়ি ৩ কাপ
  2. চিনি/গুড় ১ কাপ
  3. ঘি ১ টেবিল চামুচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

এখনকার রেসিপি চালের নাড়ু, মানে নারকেল চালভাজার নাড়ু। গ্রাম-বাংলার এই খাবারগুলি আজ বিলুপ্তপ্রায়। মজার মজার এই খাবারগুলি আমাদের জেনারেশনই ঠিকমতো চিনি না, আর আমাদের পরের জেনারেশন তো এক্কেবারেই বঞ্চিত থেকে যাবে এই খাবারগুলি থেকে। এই বিলুপ্তপ্রায় রেসিপিটি আপনাদের স্ক্রিনে আনতে পেরে নিজেকে অনেক ভাগ্যবতী মনে হচ্ছে।

পারফেক্ট চালের নাড়ু তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. চাল ভাজা ১ কাপ
  2. কোরানো নারকেল ২ কাপ
  3. ১ কাপ চিনি অথবা গুড়
  4. ঘি ১ টেবিল চামুচ
  5. ১ টি তেজপাতা
  6. ১ টুকরো দারুচিনি
  7. ১ টি ছোটো এলাচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

এখন তৈরী করে দেখাচ্ছি আমাদের সকলে প্রিয় পোলাও। তবে সাধারণ পোলাও না, সবজি পোলাও। অনেক মা অভিযোগ করেন তাদের বাচ্চারা সবজি খেতে চায়না! আমার দৃড় বিশ্বাস আমার রেসিপি ফলো করে এভাবে সবজি পোলাও তৈরী করলে বাচ্চারা আর সবজিকে না বলবেনা। আর শুধু বাচ্চা কেনো, পরিবারের ছোটো বড় সবারই ভীষণ ভালো লাগবে এই সবজি পোলাও রেসিপিটি।

সবজি পোলাও তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

সবজি পোলাও তৈরী করতে যা যা লাগছে:

  1. পোলাওর চাল ২ কাপ (৫০০ গ্রাম)
  2. ৫ রকমের সবজি দিয়েছি ০.৫ কাপ করে
    • ফুল কপি
    • গাজর
    • লাল ক্যাপসিকাম
    • সবুজ ক্যাপসিকাম
    • শিম
  3. পেঁয়াজ কুচি ০.৫ কাপ
  4. ৬/৭ টি কাঁচা মরিচ
  5. তেজ পাতা ২ টি
  6. দারুচিনি ৮-১০ সেঃ মিঃ
  7. ছোটো এলাচ ৪টি
  8. চাইনিজ স্টার মশলা ২ টি (না দিলেও হয়)
  9. মটরসুঁটি ১ কাপ
  10. ৫/৬ টি লবঙ্গ
  11. লবণ
    • ০.৫ চা চামুচ সবজিতে
    • ১ চা চামুচ পোলাওর মধ্যে
  12. আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  13. রসুন বাটা ১ চা চামুচ
  14. রান্নার তেল ০.৫ কাপ
  15. ঘি ২ টেবিল চামুচ
  16. ফুল ক্রিম দুধ ১ কাপ
  17. পানি ৪ কাপ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আপনারা অনেকেই এই ডেসার্টটির সাথে পরিচিত আবার অনেকে পরিচিত নন। আমাদের দেশে, বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে শীতকালের একটা বহু প্রচলিত ডেসার্ট এই দুধ কদু। গ্রামের মানুষ বিশেষ অনুষ্ঠান, যেমন- গায়ে হলুদ, আকিকা বা নুতন জামাই ঘরে এলে সাধারণত এই ডেসার্টটি পরিবেশন করে। যারা ডেসার্টটির সাথে পরিচিত নন, তাদের গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি এটা ভালো লাগবেই।

দুধ কদু তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

দুধ কদু তৈরী করতে লেগেছে

  1. লাউ ৪ কাপ
  2. দুধ (ফুল ক্রিম/হোল মিল্ক) ৮ কাপ
  3. নারিকেল ১ কাপ
  4. চিনি ১ কাপ
  5. ঘি
    1. রান্নার সময় ২ টেবিল চামুচ
    2. রান্না শেষে ১ টেবিল চামুচ
  6. কাঠ বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  7. পেস্তা বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  8. কিসমিস ২ টেবিল চামুচ
  9. (ঐচ্ছিক) পরিবেশনের সময় সামান্য আনার এবং বাদাম

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

একটা ঝট্ পট্ ডেসার্ট তৈরী করে দেখাচ্ছি গাজরের বরফি। এই রেসিপিটি মাত্র ২০-২৫ মিনিটে রান্না করা যায় আর একবার তৈরী করে সপ্তাহখানেক ফ্রিজে রাখা যায়। বাচ্চাদের স্কুলের টিফিনে, বিকেলে চা-এর সাথে ভীষণ ভালো লাগে খেতে।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

গাজরের বরফি তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. ৫০০ গ্রাম গাজর
  2. ০.৫ কাপ ঘি
  3. ৫/৬ সেন্টিমিটার দারুচিনি
  4. ২ টি তেজপাতা
  5. ৩ টি ছোটো এলাচ
  6. পেস্তা বাদাম ২ টেবিল চামুচ
  7. কিসমিস ১ টেবিল চামুচ
  8. গুঁড়ো দুধ ৪ টেবিল চামুচ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না। আর এই রেসিপিটির ব্লগ পোস্ট আছে ঠিকানায়।

একটা সময় ছিলো যখন ডেসার্ট বলতে আমাদের দেশে ফিরনী, ডিমের পুডিং, ডিমের জর্দা এই তিনটি নামই সুপরিচিত ছিলো। অনেকেই মনেকরি এই খাবারগুলি তৈরী করা কত যে কঠিন! আমার চ্যানেলে আমি ফিরনী আর পুডিং-এর রেসিপি দেখিয়েছি, আর এখন দেখাচ্ছি ডিমের জর্দা।

ডিমের জর্দা তৈরীর পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. ফুল ক্রিম দুধ ৪ কাপ
  2. ডিম ৬ টা
  3. চিনি ১ কাপ
  4. ঘি ০.৫ কাপ
  5. এলাচ
    • দুধে ২ টি
    • রান্নায় ২/৩ টি
  6. দারুচিনি
    • ৫ সেঃমিঃ দুধে
    • ৫/৬ সেঃমিঃ রান্নায়
  7. তেজপাতা
    • দুধে ২ টি
    • রান্নায় ২ টি
  8. পেস্তা বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  9. কাঠ বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  10. কিশমিশ ১ টেবিল চামুচ
  11. ফুড কালার প্রয়োজন মতো

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

খাসির মাংস বা মাটন অনেকেই রান্না করতে চাননা, অনেকে বলেন রান্না ঠিক মতো হয়না, অনেকে বলেন খাবার হোটেলের মতো স্বাদ হয়না, আবার প্রবাসীরা বলেন খাসির মাংসে আঁশটে একটা গন্ধ হয়। আমি এখন তৈরী করে দেখাচ্ছি ট্রেডিশনাল খাসির মাংসের কোর্মা। এই রেসিপিটি যদি তৈরী করেন, আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি, খাসির মাংস নিয়ে আপনাদের আর কোনো অভিযোগ থাকবেনা।

চলুন দেখি ট্রেডিশনাল খাসির মাংসের কোর্মা তৈরীর পদ্ধতি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

খাসির মাংসের কোর্মা তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. হাড় সহ খাসির মাংস ১ কেজি
  2. ১ কাপ টক দৈ
  3. ফুল ক্রিম দুধ ১ কাপ
  4. কাঁচা মরিচ ১০/১২ টি
  5. পেঁয়াজ কুঁচি ২ কাপ
  6. ঘি ০.৫ কাপ
  7. রান্নার তেল ০.২৫ কাপ
  8. গরম মশলার গুঁড়ি প্রয়োজন মতো
    • মেরিনেশনে ১ চা চামুচ
    • রান্নায় ০.৫ চা চামুচ
  9. ভাজা জিরার গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  10. ধনে গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  11. আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  12. রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
  13. কাঁচা মরিচ বাটা ১ টেবিল চামুচ
  14. জয়ত্রী ২/৩ গ্রাম
  15. জয়ফল ১টা
  16. ৩/৪ টি তেজ পাতা
  17. ২/৩ টি বড় এলাচ
  18. ৫/৬ টি ছোটো এলাচ
  19. ৫/৬ টি লবঙ্গ
  20. কালো গোলমরিচ ০.৫ চা চামুচ
  21. দারুচিনি প্রায় ১৫ সেন্টিমিটার
  22. লবণ ১ চা চামুচ
  23. চিনি ০.৫ চা চামুচ
  24. কাঠবাদাম প্রয়োজন মতো

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

পুরান ঢাকার একটা ঐতিহ্যবাহী কাবাব এই চাপলি কাবাব। যারা রাস্তায় এই কাবাব বিক্রি করেন তাদের মধ্যে বয়স্ক করাও সাথে কথা বলতে গেলে কাবাবটার অনেক ইতিহাস তুলে ধরে এবং কথা শেষ হয় এই বলে যে কোনো ভাবে তার পরিবারের কেউ নবাবদের ঘরে রান্নার কাজে জড়িত ছিলো এবং তারই ধারাবাহিকতায় তিনি এই রেসিপি পেয়েছেন। সত্য-মিথ্যা জানিনা, তবে কাবাবটা খেতে জোস। হাসেম নামের একজন কাবাব বাবুর্চিকে জিজ্ঞেস করেছিলাম যে মসলায় কি কি দেন, তিনি প্রথমে বললেন, “মা, অন্য কেউ জিগাইলে কই এই মসল্লায় ১৫০ পদের মসল্লা আছে, তয় আপনাদের আমার পছন হইছে, আপনারে কমু” বলে রেসিপিটি বলে দিলেন। আমরা যখন রেসিপিটি পাবলিকে উন্মুক্ত করে দেয়ার কথা বললাম, উনি অনেক খুশি হয়ে বললেন যে শর্টকাট মারতে গিয়ে আর রেসিপি লুকিয়ে রাখতে রাখতে আমাদের ঐতিহ্য আজ হারিয়ে যাচ্ছে, তাই উনি চান এই রেসিপি সবাই জেনে যাক আর বেঁচে থাকুক আজীবন।

দেখি পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী চাপলি কাবাব তৈরী করার প্রক্রিয়া –

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

চাপলি কাবাব তৈরী করে যা যা লেগেছে –

  1. ১ কেজি চর্বি সহ মাংসের কিমা
  2. ডিম
    1. কাবাব মিক্সে ২টি
    2. স্ক্র্যাম্বল এগ তৈরীতে ২টি
  3. রসুন বাটা ১ চা চামুচ
  4. ১ চা চামুচ আদা বাটা
  5. ১০ সেন্টিমিটার দারুচিনি
  6. ১ চা চামুচ লং
  7. ছোটো এলাচ ১ চা চামুচ
  8. ১০ টি শুকনো মরিচ
  9. ১ চা চামুচ কালো গোল মরিচ
  10. ১ টেবিল চামুচ গোটা ধনে
  11. ১ টেবিল চামুচ গোটা জিরা
  12. মৌরি ১ চা চামুচ
  13. কাঁচা মরিচ
    1. কাবাব মিক্সে ১ টেবিল চামুচ কুঁচি
    2. চাটনি তৈরীতে ৫/৬ টি
  14. টক দৈ ১ কাপ
  15. রসুন ১ টা
  16. বিট লবণ ০.২৫ চা চামুচ
  17. ১ কাপ পেঁয়াজ কুঁচি
  18. পুদিনা পাতা
    1. কাবাব মিক্সে ১ টেবিল চামুচ কুঁচি
    2. চাটনি তৈরী করতে ১ টেবিল চামুচ
  19. ধনে পাতা
    1. কাবাব মিক্সে ০.২৫ কাপ কুঁচি
    2. চাটনি তৈরী করতে ১ টেবিল চামুচ
  20. কিউব করে কাটা টমেটো ০.৫ কাপ
  21. কর্ণ ফ্লাওয়ার ২ টেবিল চামুচ
  22. ঘি ১ টেবিল চামুচ
  23. ২ চা চামুচ লেবুর রস
  24. লবণ
    1. কাবাব মিক্সে ১ চা চামুচ
    2. স্ক্যাম্বল এগ তৈরীতে লবণ ১ চিমটি
    3. চাটনি তৈরী করতে ০.৫ চা চামুচ লবণ
  25. প্রয়োজন মতো রান্নার তেল

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক https://fb.com/rumanaranna পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

খাসির মাংসের রেজালা রান্না করার বেশ কিছু প্রথার প্রচলন আছে আমাদের দেশে যেটা অন্য কোথাও দেখা যায়না। মুরুব্বিদের কাছে শুনেছি যে এই অঞ্চলের শাসক, যেমন রাজা বা নবাবদের জন্য বিশেষ রেসিপিতে তৈরী হতো খাসির মাংসের রেজালা। তবে তাদের অনুসারীদের যখন এরকম একটা রিচ্ ফুড খেতে ইচ্ছে করতো, তারা সবরকম উপকরণের তোয়াক্কা না করেই তৈরী করতেন খাসির রেজালা। আর সেগুলই বিভিন্নভাবে প্রচলিত হয়ে এসেছে আমাদের কাছে। তবে আমি কোনো সর্টকাটে না গিয়ে চেষ্টা করেছি অথেন্টিক রেসিপিটি উপস্থাপন করার। আশাকরি আপনাদের ভালো লাগেব।

দেখি তৈরী করার প্রক্রিয়া –

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

খাসির রেজালা তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. ১ কেজি খাসির মাংস
  2. ২ কাপ বেরেস্তার জন্য প্রয়োজনীয় পেঁয়াজ
  3. টক দৈ ১ কাপ
  4. পোস্ত দানা বাটা ২ টেবিল চামুচ
  5. মিষ্টি দৈ ০.৫ কাপ
  6. ঘি ১ কাপ
  7. ফুল ক্রিম দুধ ১ কাপ
  8. আদা বাটা ১ টেবলি চামুচ
  9. রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
  10. জিরা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  11. ৫ সেন্টিমিটার দারুচিনি
  12. ১০ টি ছোটো এলাচ
  13. প্রায় ২ গ্রাম জয়ত্রী
  14. জয়ফল গুঁড়ি ০.২৫ চা চামুচ
  15. ১০ টি লং
  16. ০.৫ চা চামুচ হলুদের গুঁড়ি
  17. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  18. ধনে গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  19. ২ চা চামুচ লবণ
  20. ১ চা চামুচ কালো গোল মরিচ
  21. কাঠ বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  22. পেস্তা বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  23. ৭/৮ টা কাঁচা মরিচ
  24. ০.৫ চা চামুচ চিনি
  25. ১ টেবিল চামুচ কিসমিস
  26. ৪/৫ টি আলু বোখারা
  27. ২ টি তেজ পাতা

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

গরম মশলা তৈরীর জন্য সব একসাথে গরম তাওয়ায় হালকা টেলে নিয়ে গুঁড়ো করেছি। তবে বাজার থেকে ভালো ব্র্যান্ডের রেডিমেড গরম মশলার গুঁড়িও ব্যবহার করা যাবে।