Tagged: আলু

আমার চ্যানেলে ডিম আলুর চপের অনেক অনেক রিকোয়েস্ট ছিলো। সবারই একটা কথা, চপটা যেনো একটু স্পেশাল হয়। আর সেজন্য আজকে তৈরী করে দেখাচ্ছি স্পেশাল ডিম আলুর চপ। চপটার একটা ভালো দিক হচ্ছে, প্রিপারেশন নিয়ে অন্তত মাসখানেক ডিপ ফ্রিজে রেখে দেয়া যায়। পরে খাওয়ার আগে রুম টেম্পারেচারে এনে ভেজে ফেললেই হলো। আর ভাজতেও বেশী সময় লাগেনা যেহেতু সব প্রিপারেশন আগেই নেয়া আছে। তাই মেহমানদারির জন্য এই চপটা খুবই স্পেশাল, আর সেজন্যই এই নামটা দেয়া।

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. ডিম ৪ টি
  2. আলু ০.৫ কেজি
  3. পেঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ
  4. লবণ ১ চা চামুচ
  5. গোল মরিচের গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
  6. বিট লবণ ০.৫ চা চামুচ
  7. শুকনো মরিচ ৫/৬ টি
  8. গরম মশলা ১ চা চামুচ

আর বেসন দিয়ে করতে চাইলে বেসনের রেসিপিটি দেখতে হবে এই লিঙ্ক থেকে।
তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

গতানুগতিক ছোলার ভুনা খেতে খেতে হয়তো আমরা একটু ক্লান্ত হয়ে যাই। তাই ছোলার একটা নতুন রেসিপি নিয়ে আসলাম কিমা ছোলা ভুনা। হ্যাঁ, নাম শুনেই হয়তো বুঝতে পারছেন যে মাংসের কিমা দিয়ে ছোলা ভুনা করেছি। খুবই সহজ পদ্ধতিটি চলুন দেখি।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. ১ কাপ ছোলা
  2. ১ কাপ কিমা (ষাড়/খাসির মাংসের)
  3. ২৫০ গ্রাম আলু
  4. ১ কাপ পেঁয়াজ কুচি
  5. ৫০ গ্রাম টমেটো
  6. ১ চা চামুচ লবণ
  7. তেল ০.৫ কাপ
  8. তেজপাতা ২ টি
  9. এলাচ ৪ টি
  10. দারুচিনি ২ টুকরো
  11. লং ৫ টি
  12. আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  13. রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
  14. মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  15. চিমটি পরিমাণ হলুদের গুঁড়ি
  16. ধনে গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  17. ভাজা জিরা গুড়ি ০.৫ চা চামুচ
  18. গরম মসলা গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

এই রমযানে একটা নুতন সিরিজ শুরু করলাম, বাংলাদেশের স্ট্রিট ফুডে যে সব ইফতারি আইটেম পাওয়া যায়, সেগুলি এক এক করে দেখাবো। প্রথম কিস্তি হিসেবে দেখাচ্ছি ভ্যান/হোটেল স্টাইলে আলুর চপ। আশাকরি দেশে বিদেশে আমার দর্শকরা এই প্রসেস ফলো করে ঘরে বসেই সাস্থ্যকর উপায়ে স্ট্রিট ফুডগুলি তৈরী করতে পারবে।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. আলু ০.৫ কেজি
  2. ৫/৬ টি শুকনো মরিচ
  3. ০.৫ কাপ পেঁয়াজ কুচি
  4. ১ চা চামুচ লবণ
  5. ভাজা জিরা গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  6. ০.৫ চা চামুচ গোল মরিচের গুঁড়ি
  7. ২ টেবিল চামুচ ধনে পাতা কুচি
  8. সামান্য বিট লবণ
  9. প্রয়োজন মতো বেসন (তৈরীর উপায় দেখুন এই লিঙ্কে)

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ফেব্রুয়ারি মাসে বগুড়ার সান্তাহারে আঠালো আলু ভর্তা খাওয়ার পরে এই নামটা মিডিয়াতে বেশ প্রচার পায়, অনেকেরই ধারণা এই ভর্তাটা বিশেষ শীল আলু বা জলপাই আলু ছাড়া হয়না। ভিডিওতে দেখতে পাচ্ছেন যে স্বাভাবিক আলু দিয়ে তৈরী করা আমার এই ভর্তাটা এতো আঠালো হয়েছে যে আমাদের নারাচারা করতেই সমস্যা হচ্ছে। আমি এখন আপনাদের দেখাবো কিভাবে আধুনিক জীবনে আমাদের ঘরে স্বাভাবিক আলু ব্যবহার করে এই ট্রেডিশনাল আঠালো আলু ভর্তা তৈরী করা যায়।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. ৫০০ গ্রাম গোল আলু
  2. ০.৫ কাপ পেঁয়াজ কুচি
  3. ১ চা চামুচ লবণ
  4. ২ টেবিল চামুচ সরিষার তেল
  5. ১০/১২ টি শুকনো মরিচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

অনেক ট্রেডিশনাল এবং অনেক রিকোয়েস্ট ছিলো এই রেসিপিটার। অনেকেই মুরগির মাংস রান্না করার ওস্তাদ, কিন্তু আমাকে অনেকেই বলেন যে আপু আমার মাংসটা কিছুতেই পারফেক্ট হয়না। তাই আমি এই রান্নার খুঁটি নাটি নিয়ে এখন হাজির হলাম।

আলু দিয়ে মুরগির মাংস তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লেগেছে –

  1. মুরগির মাংস ১ কেজি
  2. আলু ০.৫ কেজি
  3. টমেটো ০.৫ কাপ
  4. পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ
  5. পেঁয়াজ বাটা ০.৫ কাপ
  6. মরিচের গুঁড়ি
    • মেরিনেশনে ১ টেবিল চামুচ
    • রান্নার সময় ১ চা চামুচ
  7. হলুদের গুঁড়ি
    • মেরিনেশনে ০.৫ চা চামুচ
    • রান্নার সময় ১ চিমটি
  8. লবণ
    • মেরিনেশনে ১ চা চামুচ
    • রান্নার সময় ১ চা চামুচ
  9. রান্নার তেল ১ কাপ
  10. রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
  11. আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  12. ধনে গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  13. জিরা গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  14. গরম মশলার গুঁড়ি ২ টেবিল চামুচ
  15. কাঁচা মরিচ ৫/৬ টি
  16. বড় এলাচ ২ টি
  17. ছোটো এলাচ ৪ টি
  18. দারুচিনি ২০ সেঃমিঃ আনুমানিক
  19. লং ৬/৭ টি
  20. গোল মরিচ ০.৫ চা চামুচ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমার অগনিত দর্শক আমাকে মাঝে মধ্যে অনুরোধ করেছেন বিকেল বেলায় নাশতা হিসেবে খাবার জন্য বা বাচ্চাদের স্কুলে টিফিন দেবার জন্য সহজ কিছু স্ন্যাক্সের রেসিপি দিতে। সেজন্য আমি খুবই সহজ একটা স্ন্যাক্স-এর রেসিপি দিচ্ছি, পটেটো চীজ বল। আশাকরি সবার ভালো লাগবে….

পটেটো চীজ বল তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. ১ কেজি আলু
  2. ২ টেবিল চামুচ বাটার
  3. প্রয়োজন মতো মোজারেলা চীজ
  4. ১.৫ চা চামুচ লবণ
  5. ধনে পাতা ১ টেবিল চামুচ
  6. পুদিনা পাতা ১ টেবিল চামুচ
  7. ১ চা চামুচ গোল মরিচের গুঁড়ি
  8. ১ চা চামুচ আধা ভাঙ্গা শুকনো মরিচ (শুকনো মরিচ)
  9. প্রয়োজন মতো ব্রেড ক্রাম্ব

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের দেশী খাবারের হোটেলগুলির একটা বিশেষত্ব আছে, তাদের প্রতিটা খাবারের রেসিপি ইউনিক। সেটা পরটা হোক, হালিম হোক, আর কাবাব হোক, একটার থেকে আরেকটা ভিন্ন এবং সুস্বাদু। প্রতিটি খাবারের মতো হোটেলে যে মিক্সড্ সবজিটা পরিবেশন করে, সেটাও সবকিছু থেকে ভিন্ন। আমার মনে হয়না, পৃথিবীর আর কোথাও এত সুন্দর সবজি পরিবেশন করা হয়। এই রেসিপিটার জন্য অনেক অনুরোধ ছিলো, তাই তৈরী করে ফেললাম বাংলা হোটেল স্টাইলে সবজি।

ডিমের জর্দা তৈরীর পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. ১ কাপ কাঁচা পেপে
  2. ১ কাপ ফুল কপি
  3. ১ কাপ গাজর
  4. ১ কাপ শসা
  5. ১ কাপ মিষ্টি কুমড়া
  6. ১ কাপ পটল
  7. ১ কাপ আলু
  8. ০.৫ কাপ ছোলা বুটের ডাল
  9. তেজ পাতা ৩ টি
  10. শুকনো মরিচ ৫ টি
  11. কাঁচা মরিচ ৫ টি
  12. আদা বাটা ১ চা চামুচ
  13. রসুন বাটা ১ চা চামুচ
  14. রসুন ১০/১২ কোয়া
  15. পেঁয়াজ কুচি
    • ০.৫ কাপ সবজিতে
    • ০.২৫ কাপ বাগারে
  16. ধনে গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  17. জিরা গুঁড়ি ০.৫ চা চামুচ
  18. হলুদের গুঁড়ি ০.২৫ চা চামুচ
  19. ১ চা চামুচ লবণ
  20. রান্নার তেল
    • সবজিতে ০.৫ কাপ
    • বাগারে ০.২৫ কাপ
  21. পাঁচফোড়ন ১ চা চামুচ
  22. গোটা জিরা ০.৫ চা চামুচ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমরা যখন ছোটো ছিলাম ছোলা বুটের ডাল দিয়ে মাংসের আইটেমটাকে একদম আলাদা মর্যাদা দেয়া হতো। বিয়ে বাড়ি হোক, জন্মদিন হোক বা অন্য গেট টুগেদার হোক, সব সময় এই ডালটা সবার আগে পরিবেশন করা হতো। এখন হয়তো অন্য সব খাবারের ভীঁড়ে এই আইটেমের পরিবেশন কম হয়, তাই বলে ঐতিহ্যবাহী ছোলা বুটের ডাল দিয়ে মাংসের স্বাদ কিন্তু কমে যায়নি।

ছোলা বুটের ডাল দিয়ে মাংস রান্নার প্রণালীটি দেখি ভিডিওতে:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

ছোলা বুটের ডাল দিয়ে মাংস রান্না করতে যা যা লেগেছে…

  1. ৫০০ গ্রাম ছোলা বুটের ডাল
  2. ৫০০ গ্রাম মাংস (গরু/খাসি)
  3. ২ কাপ পেঁয়াজ কুঁচি
  4. ৬/৭ টি লং
  5. ৩ টি বড় এলাচ
  6. ৫/৬ টি ছোটো এলাচ
  7. তেজ পাতা ৩ টি
  8. দারুচিনি প্রায় ৮/১০ সেন্টিমিটার
  9. গরম মশলার গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  10. প্রায় ২০ টি কালো গোল মরিচ
  11. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  12. জিরা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  13. প্রয়োজন মতো লবণ
    1. ১ চা চামুচ ডাল সেদ্ধ করতে
    2. ১ চা চামুচ রান্নার সময়
    3. ২ চা চামুচ লবণ (মেরিনেশনের সময়)
  14. ধনে গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  15. হলুদের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  16. প্রয়োজন মতো কাঁচা মরিচ
    1. মেরিনেশনের সময় ৮ টি
    2. রান্নার সময় ৫/৬ টি
  17. ১ টেবিল চামুচ আদা বাটা
  18. ২ টেবিল চামুচ রসুন বাটা
  19. ভাজা জিরা গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  20. রান্নার তেল ০.৫ কাপ

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

গরম মশলা তৈরীর জন্য সব একসাথে গরম তাওয়ায় হালকা টেলে নিয়ে গুঁড়ো করেছি। তবে বাজার থেকে ভালো ব্র্যান্ডের রেডিমেড গরম মশলার গুঁড়িও ব্যবহার করা যাবে।

আমাদের উত্তরবঙ্গে অনেক গ্রাম আছে যেখানে এই মাংস ছাড়া অতিথির আপ্যায়ন হয়না বা বরযাত্রীর খাতিরদারি হয়না। গ্রাম বাংলায় ভীষণ প্রসিদ্ধ এবং ঐতিহ্যবাহী একটা রেসিপি এই মশলাই আলু গোশত্, তবে গ্রামের রেসিপিটার সাথে আমারটার একটু পার্থক্য রয়েছে। গ্রামে রান্নাটা করা হয় প্রায় দ্বিগুন তেলে আর রান্নার সময় গরুর পেটের পর্দার চর্বিটাও যোগ করা হয়, পরে পরিবেশনের সময় তেলটুকু আলাদা মাটির হাঁড়িতে করে খাবারের পাতে দেয়া হয় ডালের মতো। আমরা এখন অনেক স্বাস্থ্য সচেতন, তাই সেভাবে রান্না না করে একটু কম তেলে একই ট্রেডিশন বজায় রেখে রান্নাটা দেখালাম। আশাকরি সবারই পছন্দ হবে রেসিপিটি।

ঐতিহ্যবাহী মশলাই আলু গোশত্-এর প্রস্তুত প্রণালীটি দেখি ভিডিওতে:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

মশলাই আলু গোশত্ তৈরী করতে যা যা লাগছে…

  1. গরুর মাংস – ১ কেজি
  2. আলু – ০.৫ কেজি
  3. পেঁয়াজ – ১.৫ কাপ
  4. আদা বাটা – ২ টেবিল চামুচ
  5. রসুন বাটা – ৩ টেবিল চামুচ
  6. গরম মশলার গুঁড়ি –
    1. মাংস মেরিনেশনে ১ টেবিল চামুচ
    2. রান্নার মাঝখানে ১ টেবিল চামুচ
  7. শুকনো মরিচের গুঁড়ি – ২ চা চামুচ
  8. হলুদের গুঁড়ি – ১ চা চামুচ
  9. ধনে গুঁড়ি – ২ টেবিল চামুচ
  10. কালো গোল মরিচ গোটা – প্রায় ২৫ টি
  11. শুকনো মরিচ – ৪/৫ টি
  12. ছোটো এলাচ – ৭/৮ টি
  13. জিরা গুঁড়ি –
    1. ১ টেবিল চামুচ মাংস মেরিনেশনে
    2. ১ চা চামুচ রান্নার মাঝখানে
  14. তেঁজ পাতা – ২ টি
  15. দারুচিনি – প্রায় ৫ সেন্টিমিটার
  16. লং – ১০/১২ টি
  17. রান্নার তেল – ১ কাপ
  18. লবণ – স্বাদ মতো (আমি এখানে ২ টেবিল চামুচ দিয়েছি)

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

গরম মশলা তৈরীর জন্য সব একসাথে গরম তাওয়ায় হালকা টেলে নিয়ে গুঁড়ো করেছি। তবে বাজার থেকে ভালো ব্র্যান্ডের রেডিমেড গরম মশলার গুঁড়িও ব্যবহার করা যাবে।

আমার চ্যানেলে ট্রেডিশনাল কাচ্চি বিরিয়ানির ভিডিওটি আপলোড করার পরে প্রচুর রিকোয়েস্ট এসেছে কিভাবে প্রসেসটি আরেকটু সহজ করা যায়। যেমন, আটা দিয়ে হাঁড়িটা সিল না করে সহজ কিছু করা যায় কি-না।

অনেক আগে আমার শ্বশুর-আব্বার কাছ থেকে শিখেছিলাম কিভাবে গামছা ব্যবহার করে বিরিয়ানি দমে দিতে হয়। এখন সেটাই দেখাচ্ছি গামছা দমে কাচ্চি বিরিয়ানি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

কাচ্চি বিরিয়ানি তৈরী করতে যা যা লেগেছে –

  1. খাসির মাংস ১ কেজি
  2. সুগন্ধি পোলাওর চাল ০.৫ কেজি
  3. পিঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ
  4. রান্নার তেল ০.৫ কাপ
  5. টক দৈ ১ কাপ
  6. রসুন বাটা ২ টেবিল চামুচ
  7. আদা বাটা ১.৫ টেবিল চামুচ
  8. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  9. লবণ স্বাদ অনুযায়ী প্রয়োজন মতো
  10. ফুল ক্রিম দুধ ১ কাপ
  11. বাটা জয়ফল ১ চা চামুচ
  12. জয়ত্রী প্রায় ২ গ্রাম
  13. গরম মশলার গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  14. ঘি
    1. বিরিয়ানিতে ২ টেবিল চামুচ
    2. আলু ঝলসাতে ১ চা চামুচ
  15. জর্দ্দার রঙ প্রয়োজন মতো (আপনারা চাইলে জাফরান ব্যবহার করতে পারেন)
  16. আলু ০.৫ কেজি
  17. শাহী জিরা ১ চা চামুচ
  18. আলু বোখারা ৪/৫ টি
  19. কেওড়ার জল ২ টেবিল চামুচ
  20. গোলাপ জল ২ টেবিল চামুচ

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

আশাকরছি রেসিপিটি সবার কাজে আসবে এবং বিরিয়ানি রান্না নিয়ে আর কারও কোনো আতঙ্ক থাকবেনা। 🙂