Tagged: টক দৈ

আজকের রেসিপিটি আসলে ইউটিউবার সেলিনা রহমানের। আমরা একটি কোলাবোরেশনের মাধ্যমে একজন আরেকজনের রেসিপি আমাদের দর্শকদের কাছে উপস্থাপন করছি এই উদ্দেশ্যে যে আমাদের দর্শকদের যে রান্না নিয়ে কিছু ভ্রান্ত ধারণা আছে বা ভয় আছে, সেগুলি যাতে কেটে যায়। অনেক দর্শক অভিযোগ করেন আমার রেসিপি ফলো করেও রান্না করতে পারেননি। আবার আমার রেসিপি অন্য রাধুঁনীর সাথে তুলনা করে বলেন অমুকে এই জিনিসটা দিয়েছে আপনি দিলেন না কেনো! সেজন্য আমি সেলিনা আপুর চিকেন স্টিক কাবাবটি করছি আমার মতো করে, মানে সবকিছু হুবহু ফলো না করে। শুধু দেখাতে চাই যে মূল লক্ষ্যে যাওয়ার জন্য সব ১০০% হওয়ার প্রয়োজন নেই। আশাকরি রেসিপিটি আপনাদের ভালো লাগবে।

চিকেন স্টিক কাবাব তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লেগেছে

  1. চর্বি/হাড় ছাড়া মুরগীর মাংস ৫০০ গ্রাম
  2. ৪/৫ টি রসুনের কোয়া
  3. ৩/৪ টি কাঁচা মরিচ
  4. ১ টেবিল চামুচ পুদিনা পাতা
  5. ১ টেবিল চামুচ ধনে পাতা
  6. আদা বাটা ১ চা চামুচ
  7. ২ টেবিল চামুচ টক দৈ
  8. লবণ ০.৫ চা চামুচ
  9. অলিভ ওয়েল ১ টেবিল চামুচ
  10. ০.৫ চা চামুচ গরম মশলার গুঁড়ি
  11. গোল মরিচ ০.৫ চা চামুচ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

খাসির মাংস বা মাটন অনেকেই রান্না করতে চাননা, অনেকে বলেন রান্না ঠিক মতো হয়না, অনেকে বলেন খাবার হোটেলের মতো স্বাদ হয়না, আবার প্রবাসীরা বলেন খাসির মাংসে আঁশটে একটা গন্ধ হয়। আমি এখন তৈরী করে দেখাচ্ছি ট্রেডিশনাল খাসির মাংসের কোর্মা। এই রেসিপিটি যদি তৈরী করেন, আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি, খাসির মাংস নিয়ে আপনাদের আর কোনো অভিযোগ থাকবেনা।

চলুন দেখি ট্রেডিশনাল খাসির মাংসের কোর্মা তৈরীর পদ্ধতি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

খাসির মাংসের কোর্মা তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. হাড় সহ খাসির মাংস ১ কেজি
  2. ১ কাপ টক দৈ
  3. ফুল ক্রিম দুধ ১ কাপ
  4. কাঁচা মরিচ ১০/১২ টি
  5. পেঁয়াজ কুঁচি ২ কাপ
  6. ঘি ০.৫ কাপ
  7. রান্নার তেল ০.২৫ কাপ
  8. গরম মশলার গুঁড়ি প্রয়োজন মতো
    • মেরিনেশনে ১ চা চামুচ
    • রান্নায় ০.৫ চা চামুচ
  9. ভাজা জিরার গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  10. ধনে গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  11. আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  12. রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
  13. কাঁচা মরিচ বাটা ১ টেবিল চামুচ
  14. জয়ত্রী ২/৩ গ্রাম
  15. জয়ফল ১টা
  16. ৩/৪ টি তেজ পাতা
  17. ২/৩ টি বড় এলাচ
  18. ৫/৬ টি ছোটো এলাচ
  19. ৫/৬ টি লবঙ্গ
  20. কালো গোলমরিচ ০.৫ চা চামুচ
  21. দারুচিনি প্রায় ১৫ সেন্টিমিটার
  22. লবণ ১ চা চামুচ
  23. চিনি ০.৫ চা চামুচ
  24. কাঠবাদাম প্রয়োজন মতো

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমি পুরান ঢাকার যে বাবুর্চির কাছে কাবাবের রান্না শিখেছি, উনার কাছে একদিন শুনেছিলাম যে এই কাবাবটি একসময় বাংলাদেশে ভীষণ জনপ্রিয় ছিলো, বিশেষ করে পুরান ঢাকায়। কিন্তু হয়তোবা তৈরী করার প্রসেসটা একটু জটিল হওয়ায় এই কাবাবটার জনপ্রিয়াতা ধীরে ধীরে কমে গিয়েছে। তবে আজকে আমি রেসিপিটি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি এবং আশা করছি আপনাদের অনেক পছন্দ হবে।

চলুন দেখি কাকড়ি কাবাব তৈরীর পদ্ধতি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

মাংসের কিমা ১ কেজি (গরু/খাসির মাংস)

  1. ১ কাপ বেরেশতার জন্য প্রয়োজন মতো পেঁয়াজ
  2. দারুচিনি প্রায় ৫ সেন্টিমিটার
  3. ছোটো এলাচ ৫/৬ টি
  4. ১ চা চামুচ ধনে
  5. ১ চা চামুচ জিরা
  6. কালো গোল মরিচ ১ চা চামুচ
  7. লবঙ্গ ১ চা চামুচ
  8. শুকনো মরিচ ৫/৬ টি
  9. প্রয়োজন মতো কাঁচা মরিচ
    • কাবাবে ১ টেবিল চামুচ কুঁচি
    • সস তৈরী করতে ২ টি
  10. গরম মশলার গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  11. প্রয়োজন মতো রসুন
    • কাবাবে ২ টেবিল চামুচ রসুন কুঁচি
    • সস তৈরীতে ১টি কোয়া
  12. আদা কুঁচি ১ টেবিল চামুচ
  13. টক দৈ ০.৫ কাপ
  14. নারিকেল ০.৫ কাপ
  15. প্রয়োজন মতো লবণ
    • কাবাবে ১ চা চামুচ
    • সস তৈরীতে ০.৫ চা চামুচ
  16. পুদিনা পাতা ১০/১২ টি
  17. ধনে পাতা প্রয়োজন মতো
    • সস তৈরী করতে ৫/৬ ডাটি
    • কাবাব ভাজতে প্রয়োজন মতো
  18. প্রয়োজন মতো রান্নার তেল

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

বাসবুসা বা সেমোলিনা কেক নামটি আমাদের অনেকের কাছে তেমন পরিচিত না হলেও সুজি দিয়ে তৈরী এই কেকটি মধ্যপ্রাচ্যের ভীষন জনপ্রিয় একটি ডেসার্ট। খুবই কম সময়ে আর খুবই কম খাটুনিতে তৈরী করা যায় এই অসাধারণ ডেসার্ট। বাসবুসা অনেকেই অনেকভাবে তৈরী করে থাকেন, তবে আমি বাসায় সবসময় যে পদ্ধতিতে তৈরী করে থাকি সেটা দেখাচ্ছি।

দেখি বাসবুসা তৈরী করার প্রক্রিয়া –

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

বাসবুসা তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. ১ কাপ সুজি
  2. ময়দা ১ কাপ
  3. বেকিং পাউডার ২ চা চামুচ
  4. ডিম ৩ টি
  5. বাটার ০.৫ কাপ
  6. নারকেল ০.৫ কাপ
  7. চিনি
    1. কেকের মধ্যে ১ কাপ
    2. ২ কাপ চিনির শিরায়
  8. টক দৈ ১ কাপ
  9. ভ্যানিলা এসেন্স ২ চা চামুচ
  10. গোলাপ জল ১ টেবিল চামুচ

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক https://fb.com/rumanaranna পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

বিয়ে বাড়ি বা হোটেলে ভারী খাবার খাওয়ার পর এক গ্লাস বোরহানীর জুড়ি নেই। অতিরিক্ত তেলযুক্ত মসলাদার খাবার খেয়ে জিহ্বার আড়ষ্টতা দূরীকরণে তা খুবই কার্যকর। শুধু তাই নয়, বোরহানির প্রধান উপকরণ টক দইয়ে প্রচুর ব্যাকটেরিয়া আছে, যা খাবার হজম করে পেট ঠান্ডা রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। এতে দুধের চেয়েও বেশী ভিটামিন ও মিনারেল পাওয়া যায়। যা দেহের সুস্থতার জন্য খুবই উপকারী। আসুন আজই বাসায় বসে নিজের হাতে বানিয়ে ফেলি মজাড়ার সুস্বাদু বোরহানী।

দেখি বোরহানী তৈরী করার প্রক্রিয়া –

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

রোরহানী তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. পুদিনা পাতা ০.৫ কাপ
  2. ধনে পাতা ০.৫ কাপ
  3. কাঁচা মরিচ ৪/৫ টি
  4. ২ কাপ টক দৈ
  5. ১ চা চামুচ বিট লবণ
  6. লবণ ০.২৫ চা চামুচ
  7. ভাজা ধনে গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  8. ভাজা জিরা গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  9. গোল মরিচ ১ চা চামুচ
  10. চিনি ৩ টেবিল চামুচ

পুরান ঢাকার একটা ঐতিহ্যবাহী কাবাব এই চাপলি কাবাব। যারা রাস্তায় এই কাবাব বিক্রি করেন তাদের মধ্যে বয়স্ক করাও সাথে কথা বলতে গেলে কাবাবটার অনেক ইতিহাস তুলে ধরে এবং কথা শেষ হয় এই বলে যে কোনো ভাবে তার পরিবারের কেউ নবাবদের ঘরে রান্নার কাজে জড়িত ছিলো এবং তারই ধারাবাহিকতায় তিনি এই রেসিপি পেয়েছেন। সত্য-মিথ্যা জানিনা, তবে কাবাবটা খেতে জোস। হাসেম নামের একজন কাবাব বাবুর্চিকে জিজ্ঞেস করেছিলাম যে মসলায় কি কি দেন, তিনি প্রথমে বললেন, “মা, অন্য কেউ জিগাইলে কই এই মসল্লায় ১৫০ পদের মসল্লা আছে, তয় আপনাদের আমার পছন হইছে, আপনারে কমু” বলে রেসিপিটি বলে দিলেন। আমরা যখন রেসিপিটি পাবলিকে উন্মুক্ত করে দেয়ার কথা বললাম, উনি অনেক খুশি হয়ে বললেন যে শর্টকাট মারতে গিয়ে আর রেসিপি লুকিয়ে রাখতে রাখতে আমাদের ঐতিহ্য আজ হারিয়ে যাচ্ছে, তাই উনি চান এই রেসিপি সবাই জেনে যাক আর বেঁচে থাকুক আজীবন।

দেখি পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী চাপলি কাবাব তৈরী করার প্রক্রিয়া –

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

চাপলি কাবাব তৈরী করে যা যা লেগেছে –

  1. ১ কেজি চর্বি সহ মাংসের কিমা
  2. ডিম
    1. কাবাব মিক্সে ২টি
    2. স্ক্র্যাম্বল এগ তৈরীতে ২টি
  3. রসুন বাটা ১ চা চামুচ
  4. ১ চা চামুচ আদা বাটা
  5. ১০ সেন্টিমিটার দারুচিনি
  6. ১ চা চামুচ লং
  7. ছোটো এলাচ ১ চা চামুচ
  8. ১০ টি শুকনো মরিচ
  9. ১ চা চামুচ কালো গোল মরিচ
  10. ১ টেবিল চামুচ গোটা ধনে
  11. ১ টেবিল চামুচ গোটা জিরা
  12. মৌরি ১ চা চামুচ
  13. কাঁচা মরিচ
    1. কাবাব মিক্সে ১ টেবিল চামুচ কুঁচি
    2. চাটনি তৈরীতে ৫/৬ টি
  14. টক দৈ ১ কাপ
  15. রসুন ১ টা
  16. বিট লবণ ০.২৫ চা চামুচ
  17. ১ কাপ পেঁয়াজ কুঁচি
  18. পুদিনা পাতা
    1. কাবাব মিক্সে ১ টেবিল চামুচ কুঁচি
    2. চাটনি তৈরী করতে ১ টেবিল চামুচ
  19. ধনে পাতা
    1. কাবাব মিক্সে ০.২৫ কাপ কুঁচি
    2. চাটনি তৈরী করতে ১ টেবিল চামুচ
  20. কিউব করে কাটা টমেটো ০.৫ কাপ
  21. কর্ণ ফ্লাওয়ার ২ টেবিল চামুচ
  22. ঘি ১ টেবিল চামুচ
  23. ২ চা চামুচ লেবুর রস
  24. লবণ
    1. কাবাব মিক্সে ১ চা চামুচ
    2. স্ক্যাম্বল এগ তৈরীতে লবণ ১ চিমটি
    3. চাটনি তৈরী করতে ০.৫ চা চামুচ লবণ
  25. প্রয়োজন মতো রান্নার তেল

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক https://fb.com/rumanaranna পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

ভীষণ সিম্পল একটা ডেসার্ট তৈরী করছি, “ক্যারামেল ফ্ল্যান।”

উৎসব আনন্দের সময় মিষ্টান্ন বা ডেসার্ট তৈরী করতেই হয়, নাহলে রাঁধুনীদের ষোল কলা পুর্ণ হয়না। আর ঈদের মতো একটা আনন্দের সময় আমরা সবাই চাই পরিবার পরিজনের সাথে হৈ চৈ করে সময় অতিক্রম করতে, আর সেই সময়গুলিতে খুব কম মানুষই আছে যারা পরিবার পরিজন রেখে রান্নাঘরে সময় দিতে চায়। কিন্তু রান্না-বান্নার হাত থেকেতো আর রেহাই পাওয়ার উপায় নেই। তারপরও অল্প সময়ে যদি সুস্বাদু কিছু তৈরী করা যায়, তাহলেতো সোনায় সোহাগা। ক্যারামেল ফ্ল্যান তৈরী করার বেশ কিছু উপায় আছে, তবে আমি আমার বাসায় সবসময় এটাই তৈরী করি। ক্যারামেল ফ্ল্যান বিদেশী রেসিপি হলেও যেহেতু তৈরী করা অনেক সহজ, সময় অনেক কম লাগে এবং চুলার উপরে কাজ খুবই কম, তাই আমি পরামর্শ দেবো ঈদের মতো উৎসব আনন্দের সময় পরিবারকে বেশী সময় দিন আর এরকম ডেসার্ট তৈরী করুন। আপনার কাজ কম হবে আর সবাই প্রসংশাও করবে। 🙂

দেখি তৈরী করার প্রক্রিয়া –

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

ক্যারামেল ফ্ল্যান তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. ১ কাপ ফুল ক্রিম দুধ
  2. ৪ টা ডিম
  3. ১ কাপ মিল্ক ক্রিম
  4. ১ কাপ কনডেন্সড্ মিল্ক
  5. চিনি ১ কাপ
  6. ১ চা চামুচ ভ্যানিলা অ্যাসেন্স

তৈরী করে আমাদের ফেসবুক https://fb.com/rumanaranna পেজে আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের ঘরে ঘরে শিক কাবাব, জালি কাবাব, শামি কাবাব অনেক পরিচিত হলেও এই নবাবি তাওয়া কাবাবটা অনেকেই ঘরে তেমন তৈরী করেন না। বলা হয়ে থাকে গরুর পেছনের রানের মাংস, হাতুড়ি দিয়ে থেতে নিয়ে তখনকার দিনে নবাব পরিবারের জন্য এই কাবাবটি তৈরী করা হতো অনেক বড় বড় সাইজে। এখন তৈরী করে দেখাচ্ছি পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী এই নবাবি তাওয়া কাবাব রেসিপিটি।

দেখি পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী নবাবি তাওয়া কাবাব তৈরী করার প্রক্রিয়া –

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. মাংসের কিমা ১ কেজি (গরু/খাসির মাংস)
  2. ১ কাপ বেরেশতার জন্য প্রয়োজন মতো পেঁয়াজ
  3. দারুচিনি প্রায় ৫ সেন্টিমিটার
  4. ছোটো এলাচ ৫/৬ টি
  5. ১ চা চামুচ ধনে
  6. ১ চা চামুচ জিরা
  7. কালো গোল মরিচ ১ চা চামুচ
  8. লবঙ্গ ১ চা চামুচ
  9. শুকনো মরিচ ৫/৬ টি
  10. প্রয়োজন মতো কাঁচা মরিচ
    1. কাবাবে ১ টেবিল চামুচ কুঁচি
    2. সস তৈরী করতে ২ টি
  11. গরম মশলার গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  12. প্রয়োজন মতো রসুন
    1. কাবাবে ২ টেবিল চামুচ রসুন কুঁচি
    2. সস তৈরীতে ১টি কোয়া
  13. আদা কুঁচি ১ টেবিল চামুচ
  14. টক দৈ ০.৫ কাপ
  15. নারিকেল ০.৫ কাপ
  16. প্রয়োজন মতো লবণ
    1. কাবাবে ১ চা চামুচ
    2. সস তৈরীতে ০.৫ চা চামুচ
  17. পুদিনা পাতা ১০/১২ টি
  18. ধনে পাতা প্রয়োজন মতো
    1. সস তৈরী করতে ৫/৬ ডাটি
    2. কাবাব ভাজতে প্রয়োজন মতো
  19. প্রয়োজন মতো রান্নার তেল

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

গরম মশলা তৈরীর জন্য সব একসাথে গরম তাওয়ায় হালকা টেলে নিয়ে গুঁড়ো করেছি। তবে বাজার থেকে ভালো ব্র্যান্ডের রেডিমেড গরম মশলার গুঁড়িও ব্যবহার করা যাবে।

খাসির মাংসের রেজালা রান্না করার বেশ কিছু প্রথার প্রচলন আছে আমাদের দেশে যেটা অন্য কোথাও দেখা যায়না। মুরুব্বিদের কাছে শুনেছি যে এই অঞ্চলের শাসক, যেমন রাজা বা নবাবদের জন্য বিশেষ রেসিপিতে তৈরী হতো খাসির মাংসের রেজালা। তবে তাদের অনুসারীদের যখন এরকম একটা রিচ্ ফুড খেতে ইচ্ছে করতো, তারা সবরকম উপকরণের তোয়াক্কা না করেই তৈরী করতেন খাসির রেজালা। আর সেগুলই বিভিন্নভাবে প্রচলিত হয়ে এসেছে আমাদের কাছে। তবে আমি কোনো সর্টকাটে না গিয়ে চেষ্টা করেছি অথেন্টিক রেসিপিটি উপস্থাপন করার। আশাকরি আপনাদের ভালো লাগেব।

দেখি তৈরী করার প্রক্রিয়া –

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

খাসির রেজালা তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. ১ কেজি খাসির মাংস
  2. ২ কাপ বেরেস্তার জন্য প্রয়োজনীয় পেঁয়াজ
  3. টক দৈ ১ কাপ
  4. পোস্ত দানা বাটা ২ টেবিল চামুচ
  5. মিষ্টি দৈ ০.৫ কাপ
  6. ঘি ১ কাপ
  7. ফুল ক্রিম দুধ ১ কাপ
  8. আদা বাটা ১ টেবলি চামুচ
  9. রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
  10. জিরা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  11. ৫ সেন্টিমিটার দারুচিনি
  12. ১০ টি ছোটো এলাচ
  13. প্রায় ২ গ্রাম জয়ত্রী
  14. জয়ফল গুঁড়ি ০.২৫ চা চামুচ
  15. ১০ টি লং
  16. ০.৫ চা চামুচ হলুদের গুঁড়ি
  17. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  18. ধনে গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  19. ২ চা চামুচ লবণ
  20. ১ চা চামুচ কালো গোল মরিচ
  21. কাঠ বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  22. পেস্তা বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  23. ৭/৮ টা কাঁচা মরিচ
  24. ০.৫ চা চামুচ চিনি
  25. ১ টেবিল চামুচ কিসমিস
  26. ৪/৫ টি আলু বোখারা
  27. ২ টি তেজ পাতা

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

গরম মশলা তৈরীর জন্য সব একসাথে গরম তাওয়ায় হালকা টেলে নিয়ে গুঁড়ো করেছি। তবে বাজার থেকে ভালো ব্র্যান্ডের রেডিমেড গরম মশলার গুঁড়িও ব্যবহার করা যাবে।

আমাদের এই উপমহাদেশে যে কত রকমের বিরিয়ানির প্রচলন আছে, সেই হিসাব হয়তো উইকিপিডিয়াতেও নেই। তবে বিরিয়ানির প্রস্তুত প্রণালী যত জটিল স্বাদ ততই মজার। যেমন এখন যেই রেসিপিটি দেখেচ্ছি সেটা তৈরী করতে প্রায় ৩০ রকমের উপকরণ লেগেছে। তাই বলে কি, তৈরী করতে অনেক ঝামেলা? মোটেও না। যদি উপকরণগুলি হাতের কাছে থাকে, তাহলে এটা কোনো বিষয়ই না, আর সেজন্যই সবাইকে সহজভাবে হায়দ্রাবাদি চিকেন বিরিয়ানি তৈরীর প্রণালী দেখাতে আমার এই ভিডিও।

হায়দ্রাবাদি চিকেন বিরিয়ানি তৈরীর প্রণালীটি দেখি ভিডিওতে:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

হায়দ্রাবাদি চিকেন বিরিয়ানি তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. বাসমতি চাল – ৫০০ গ্রাম
  2. মুরগির মাংস – ১ কেজি
  3. পেঁয়াজ – ১.২৫ কাপ বেরেস্তার জন্য প্রয়োজন মতো
  4. টক দৈ – ১ কাপ
  5. দুধ – ২ টেবিল চামুচ
  6. কাজু বাদাম – ১৫/২০ টি
  7. কিসমিস – ১৫/২০ টি
  8. ধনে গুঁড়ি – ১ চা চামুচ
  9. শুকনো মরিচের গুঁড়ি – ১ চা চামুচ
  10. লবণ
    1. মাংস মেরিনেশনে – ১ চা চামুচ
    2. চাল সেদ্ধ করতে প্রয়োজন মতো
  11. আদা বাটা – ১ টেবিল চামুচ
  12. রসুন বাটা – ১ টেবিল চামুচ
  13. তেঁজ পাতা – ২/৩ টি
  14. দারুচিনি – প্রায় ৫/৬ সেন্টিমিটার
  15. বড় এলাচ – ২ টি
  16. ছোটো এলাচ – ৪/৫ টি
  17. লং – ৫/৬ টি
  18. কালো গোল মরিচের গুঁড়ি – ২ চা চামুচ
  19. গরম মশলার গুঁড়ি – ১ চা চামুচ
  20. ভাজা জিরা গুঁড়ি – ১ চা চামুচ
  21. কাঁচা মরিচ – ৪/৫ টি
  22. লেবুর রস – প্রায় ২ চা চামুচ
  23. রান্নার তেল
    1. মাংস মেরিনেশনে – ০.৫ কাপ
    2. চাল সেদ্ধ করতে – ২ চা চামুচ
    3. পেঁয়াজ বেরেস্তা করতে প্রয়োজন মতো
  24. জাফরান – প্রায় ১ গ্রাম
  25. শাহি জিরা – ১ চা চামুচ
  26. পুদিনা পাতা – প্রয়োজন মতো
  27. ধনে পাতা – প্রয়োজন মতো
  28. গোলাপ জল – ২ টেবিল চামুচ
  29. ক্যাওড়ার জল – ২ টেবিল চামুচ
  30. ঘি – ০.৭৫ কাপ

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

গরম মশলা তৈরীর জন্য সব একসাথে গরম তাওয়ায় হালকা টেলে নিয়ে গুঁড়ো করেছি।