Tagged: নিরামিষ

আচারের প্রতি আমাদের সবারই মোটামুটি একটা ভালো ফ্যান্টাসি আছে। অনেকরকমের আচারের মধ্য থেকে এই ব্যস্ত জীবনে শুধু সেগুলিই টিকে আছে যেগুলি তৈরী করতে ঝামেলা কম। আমের কাশ্মীরি আচারটি তার মধ্যে অন্যতম। যদি অথেন্টিক বা একদমই ট্রেডিশনাল নিয়মে করতে যাই, তারপরও ঝুট-ঝামেলা এক্কেবারে কম। শুধু নিয়ম মাফিক সবকিছু করলেই হলো।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. কাঁচা আম ২ কেজি
  2. চিনি ৩ কেজি
  3. খওয়ার চুন ০.৫ কেজি
  4. ১৫/১৬ টি শুকনো মরিচ
  5. আদা কুচি ০.৫ কাপ
  6. ভিনেগার ০.২৫ কাপ
  7. ০.৫ চা চামুচ লবণ
  8. আচার রান্নার সিরা তৈরী করতে পানি ৬ কাপ

বিঃদ্রঃ চুন না পেলে ২ কেজি আম ০.৫ কেজি লবণ দিয়ে ভেজাতে পারেন। যদি ভাবেন আমটা নোনতা হয়ে যাবে কি-না, না নোনতা হবে না। ৫ ঘন্টা ভেজানোর পরে ধুয়ে ফেললে আমের টকের সাথে লবণের নোনতা ভাব দুটোই চলে যাবে।

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আচার তৈরী করার প্রসেস অনেক বলে আমরা অনেকই ভয় পাই। এখন এমন একটা আচার দেখাচ্ছি যেটাতে আমে রোদ দিতে হবেনা, এমনকি আচার তৈরী কারা পরেও রোদে রাখার প্রয়োজন নাই, প্রয়োজন নাই ফ্রিজে করে সংরক্ষণ করার। এয়ার টাইট বক্সে করে ফ্রিজে না রেখে অনায়াসে ৩ মাস সংরক্ষণ করতে পারবেন এই আচার।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লেগেছে

  1. কাঁচা আম ২ কেজি (চেষ্টা করবেন আঁটি শক্ত হয়েছে এরকম আম নিতে)
  2. চিনি ৬ কাপ
  3. সরিষার তেল ১ কাপ
  4. সাদা ভিনেগার ০.২৫ কাপ
  5. গরম মশলার গুঁড়ি ২ চা চামুচ
  6. পাঁচ ফোড়ন গুঁড়ি ২ চা চামুচ
  7. লবণ ২ চা চামুচ (আম বেশী টক হলে একটু বেশী লবণ দিতে পারেন)

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের রান্নাঘরের কমন একটা শবজি দিয়ে যে কত সুন্দর একটা ডেসার্ট তৈরী করা যায়, আমি এখন সেটাই দেখাবো। তৈরী করছি কাঁচা পেপের জর্দা। এই জর্দাটা তৈরী করা যেমন সহজ, খেতেও সেরকম সুস্বাদু।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. কাঁচা পেপে ১ কেজি
  2. চিনি ১ কাপ
  3. গুঁড়ো দুধ ৪ টেবিল চামুচ
  4. ঘি ০.২৫ কাপ + শেষে ১ চা চামুচ
  5. দারুচিনি ২ টুকরো (আনুমানিক ১০ সেঃমিঃ)
  6. ছোটো এলাচ ৩/৪ টি
  7. তেজপাতা ১ টি
  8. কিসমিস ২ টেবিল চামুচ
  9. বাদাম কুচি ২ টেবিল চামুচ
  10. গোলাপ জল ১ চা চামুচ (ঐচ্ছিক)
  11. সবশেষে আমি একটু জাফরান দিয়ে সাজিয়েছি (ঐচ্ছিক)

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

কাঁচা কাঁঠালের তরকারি যে কত মজার একটা তরকারি তা যে কখনো খায়নি, জানবেনা। আমার এই রেসিপি অনুযায়ী যদা আপনারা একবার কাঁচা কাঁঠাল ভুনা রান্না করেন বুঝতে পারবেন এটা ভুনা মাংসের চাইতেও মজাদার। এই ১০০% ভেজিটেরিয়ান রেসিপিটি তৈরীর পদ্ধতিটি দেখি।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. ১ কেজি কাঁচা কাঁঠাল
  2. পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ
  3. ১ কাপ রান্নার তেল
  4. ছোটো এলাচ ৫/৬ টি
  5. বড় এলাচ ৩ টি
  6. কয়েক টুকরো দারুচিনি, আনুমানিক ২০ সেঃমিঃ
  7. তেজপাতা ২ টুকরো
  8. ৫/৬ টি লং
  9. রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
  10. আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  11. শুকনো মরিচ ৮/১০ টি
  12. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  13. হলুদের গুঁড়ি –
    • কাঁঠাল সেদ্ধ করতে চিমটি পরিমাণ
    • রান্নার সময় চিমটি পরিমাণ
  14. ধনে গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  15. জিরা গুঁড়ি ২ চা চামুচ
  16. গরম মশলার গুঁড়ি ১ চা চামুচ
  17. লবণ
    • কাঁঠাল সেদ্ধ করতে ১ চা চামুচ
    • রান্না করতে ১ চা চামুচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

নারিকেল দিয়ে লাড্ডু কম বেশী আমরা সবাই খেয়েছি। এখন খুবই সাধারণ একটা রেসিপি দেখাচ্ছি, নারিকেল দিয়ে তৈরী করা নারিকেলের বরফি। নারিকেলের বরফি রেসিপিটির সুবিধা হলো, খুব কম ঝামেলায় হাতের নাগালের সব উপকরণ দিয়ে চট্ করে তৈরী করে ফেলা যায় যে-কোনো সময়।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. ৩ কাপ নারিকেল
  2. ৩ টেবিল চামুচ ঘি
  3. ৩ টেবিল চামুচ গুঁড়ো দুধ
  4. ১ কাপ চিনি
  5. ২ টেবিল চামুচ তরল দুধ
  6. ২ টুকরো দারুচিনি (আনুমানিক ১০ সেঃমিঃ)
  7. ৩ টি ছোটো এলাচ
  8. ১ টি তেজপাতা
  9. সাজানোর জন্য সামান্য পেস্তা বাদাম

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

এরকম অনেক সময় আছে যখন মিষ্টি খেতে ইচ্ছে হয়, কিন্তু বাসায় বা কাছাকাছি মিষ্টি উপলব্ধ নেই। সেরকম সময় কিভাবে আপনার রান্নাঘরের কমন তরকারি আলু দিয়ে একটা সুস্বাদু হালুয়া তৈরী করা যায়, সেটাই দেখাচ্ছি।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে

  1. আলু ১ কেজি
  2. ফুল ক্রিম দুধ ৪ কাপ (১ লিটার)
  3. চিনি ২ কাপ
  4. ঘি ১ কাপ + শেষে ১ টেবিল চামুচ
  5. ফুল ক্রিম গুঁড়ো দুধ ৪ টেবিল চামুচ
  6. এলাচ ৪ টি
  7. দারুচিনি ২ টুকরো (প্রায় ১২ সেঃমিঃ)
  8. ২ টি তেজপাতা
  9. রঙ ০.২৫ চা চামুচ
  10. পেস্তা বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  11. কাজু বাদাম ১ টেবিল চামুচ
  12. কিসমিস ২ টেবিল চামুচ
  13. গোলাপজল ০.৫ চা চামুচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

অনেকে অনেকভাবে বুটের ডালের হালুয়া তৈরী করেন। কাকতলীয়ভাবে আমার বাবার বাড়ী ও শ্বশুড় বাড়ীতে একই ভাবে এই বুটের ডালের হালুয়া তৈরী করা হয়। বুটের ডালের হালুয়া তৈরীর এই ট্রেডিশনাল প্রসেসটা শেয়ার করছি আমার দর্শকদের সাথে।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –
– ২ কাপ বুটের ডাল
– ৪ কাপ ফুল ক্রিম দুধ
– ২ কাপ চিনি
– ঘি ১ কাপ + ২ টেবিল চামুচ
– ছোটো এলাচ ৪ টি
– দারুচিনি প্রায় ১০ সেঃমিঃ
– তেজপাতা ১ টি

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

এই খাবারগুলি আমাদের উত্তরাঞ্চলের অহংকার এবং আমরা আমাদের অহংকার বিশ্বের বাঙ্গালীদের কাছে পৌছে দিতে পেরে গর্বিত! তৈরী করে দেখাচ্ছি উত্তরাঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী একটি রেসিপি বাসি ভাত দিয়ে তৈরী মাখা ভাত।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. ১ কাপ চালের বাসি ভাত
  2. ১০/১২ টি শুকনো মরিচ
  3. ২ চা চামুচ রসুন কুচি
  4. পেঁয়াজ কুচি ০.৫ কাপ (২ টি বড় পেঁয়াজ)
  5. ১ চা চামুচ লবণ
  6. ১ টেবিল চামুচ সরিষার তেল

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ফেব্রুয়ারি মাসে বগুড়ার সান্তাহারে আঠালো আলু ভর্তা খাওয়ার পরে এই নামটা মিডিয়াতে বেশ প্রচার পায়, অনেকেরই ধারণা এই ভর্তাটা বিশেষ শীল আলু বা জলপাই আলু ছাড়া হয়না। ভিডিওতে দেখতে পাচ্ছেন যে স্বাভাবিক আলু দিয়ে তৈরী করা আমার এই ভর্তাটা এতো আঠালো হয়েছে যে আমাদের নারাচারা করতেই সমস্যা হচ্ছে। আমি এখন আপনাদের দেখাবো কিভাবে আধুনিক জীবনে আমাদের ঘরে স্বাভাবিক আলু ব্যবহার করে এই ট্রেডিশনাল আঠালো আলু ভর্তা তৈরী করা যায়।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে –

  1. ৫০০ গ্রাম গোল আলু
  2. ০.৫ কাপ পেঁয়াজ কুচি
  3. ১ চা চামুচ লবণ
  4. ২ টেবিল চামুচ সরিষার তেল
  5. ১০/১২ টি শুকনো মরিচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

সিম্পল একটা ভর্তার রেসিপি নিয়ে আসলাম আমাদের দর্শকদের জন্য, যেটা তৈরী করা যেমন সহজ খেতেও সেরকম মজা। তৈরী করে দেখাচ্ছি মিষ্টি কুমড়োর ভর্তা।

তৈরী করার পদ্ধতি দেখি:

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে লাগছে

  1. মিষ্টি কুমড়ো ২৫০ গ্রাম
  2. ২ টি রসুনের কোয়া
  3. ২ টি বড় পেয়াঁজ
  4. ৪ টি শুকনো মরিচ
  5. সরিষার তেল: ভর্তায় ১ চা চামুচ, মরিচ ভাজতে ১ চা চামুচ
  6. লবণ ০.৫ চা চামুচ

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করতে ভুলবেন না।