শরীফা নজরুল শিক্ষা বৃত্তি

বাংলাদেশে প্রচুর মেধাবী ছাত্র ছাত্রী আছে যারা বিভিন্ন আর্থিক জটিলতার কারণে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করতে পারেনা, পারেনা শিক্ষা বৃত্তির জন্য যোগ্য হতে বিভিন্ন আমলা তান্ত্রিক জটিলতার কারণে। আমাদের উদ্দেশ্য হলো সেরকম মেধাবী শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানো। রুমানার রান্নাবান্না ইউটিউব চ্যানেলটি শুরু থেকেই অলাভজনক উদ্দেশ্য নিয়ে কাজ করে আসছে, তবে উপার্জন দিয়ে যদি ভালো কিছু করা যায়, তাহলে মন্দ কি!

২০১২ সালে যাত্রা শুরু করলেও ২০১৪ সাল থেকে আমরা আমাদের কাজের মাধ্যমে উপার্জন করা শুরু করি। আর কিভাবে এই উপার্জন দিয়ে মানুষের উপকার করা যায় সেটা নিয়ে ভাবি। যুক্ত হয়ে যাই তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে। কিশোরগঞ্জ, নোয়াখালি ও বগুড়ার এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে আমরা নিয়মিত অনুদানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের জন্য কিছু করার একটি ছোটো উদ্যোগ নিয়েছিলাম। এবার আমাদের প্রচেষ্টা আনুষ্ঠানিকভাবে স্বতন্ত্র শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানোর।

তাই আমরা শুরু করছি শরীফা নজরুল শিক্ষাবৃত্তি। এই বৃত্তি কি এবং কারা এই বৃত্তি পাওয়ার যোগ্যতা পাবে চলুন জানি –

  • পরবর্তী আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত প্রতি বছর রুমানার রান্নাবান্না দুই জন মেয়ে শিক্ষার্থীকে শরীফা নজরুল শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করবে।
  • শরীফা নজরুল শিক্ষাবৃত্তির আওতায় একজন শিক্ষার্থী যা পাবে –
    • উচ্চমাধ্যমিক পাঠ্যক্রমের সমস্ত বই
    • উচ্চমাধ্যমিক লেখাপড়ার জন্য মহাবিদ্যালয়ের খরচ
    • উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ফি
    • পরীক্ষা চলাকালীন সময়ের জন্য ভাতা।
      ভাতার অঙ্কটি শিক্ষার্থীর শিক্ষকদের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে নির্ধারণ করা হবে
  • শুধু মাত্র মেয়ে শিক্ষার্থীরা এই বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে। তবে –
    • শিক্ষার্থীকে অবশ্যই জন্ম সূত্রে বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে
    • শিক্ষার্থীকে অবশ্যই গ্রামে বসবাসরত থাকতে হবে
    • শিক্ষার্থীকে অবশ্যই বাংলাদেশের কোনো গ্রামের মহাবিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত থাকতে হবে
    • শিক্ষার্থীর মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বিবেচনায় শিক্ষার্থীকে অবশ্যই মেধাবী হতে হবে
    • শিক্ষার্থীর যে আর্থিক সহায়তার প্রয়োজন আছে, তার অনুকুলে শিক্ষার্থীর মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষকের লিখিত সুপারিশ থাকতে হবে।
  • মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাস করে উচ্চমাধ্যমিকে লেখা-পড়া করার জন্য মহাবিদ্যালয়ে ভর্তি হবার পর শিক্ষার্থী শরীফা নজরুল শিক্ষাবৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবে এবং আবেদনের সাথে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সংযুক্ত করতে হবে।
  • শরীফা নজরুল শিক্ষাবৃত্তির আবেদনের জন্য যে তথ্যগুলি লাগবে –
    • শিক্ষার্থীর বৃত্তান্ত
    • শিক্ষার্থীর জন্ম নিবন্ধন পত্র
    • শিক্ষার্থীর ছবি (ছবির পটভূমি সাদা বা হালকা রঙের হতে হবে)
    • মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের নিবন্ধন পত্র
    • মাধ্যমিক পরীক্ষার নম্বর পত্র
    • শিক্ষার্থীর পিতার জাতীয় পরিচয় পত্র
    • শিক্ষার্থীর মাতার জাতীয় পরিচয় পত্র
    • শরীফা নজরুল শিক্ষাবৃত্তির জন্য শিক্ষার্থীর নিজ হাতে লিখিত আবেদন পত্র
    • শিক্ষার্থী নিজ হাতে সর্বনিম্ন ১৫০০ শব্দের একটি রচনা লিখে দেবে যেখানে তার জীবন, পরিবার, গ্রাম, বিদ্যালয়/মহাবিদ্যালয় নিয়ে আলোচনা থাকবে
    • মহাবিদ্যালয়ের প্রধানের লিখিত সুপারিশ পত্র
    • একজন শ্রেণী শিক্ষক কর্তৃক লিখিত সুপারিশ পত্র
  • উপরে উল্লেখিত কাগজগুলির মূল কপির ছবি তুলে বা কম্পিউটারে স্ক্যান করে আবেদনের সাথে সংযুক্ত করতে হবে
  • শরীফা নজরুল শিক্ষাবৃত্তির জন্য আবেদন শুধুমাত্র রুমানা রান্নাবান্না ওয়েবসাইটের মাধ্যমে গ্রহণ করা হবে এবং অন্য কোনো মাধ্যমে আবেদন গ্রহণ করা হবে না।
  • শিক্ষার্থী অনিবার্য কারণে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে না পারলে বা অকৃতকার্য হলে পরবর্তী পরীক্ষার জন্য রুমানার রান্নাবান্না আর কোনো রকমের পৃষ্ঠপোষকতা করবে না

যতগুলি আবেদন জমা পড়বে, তার মধ্য থেকে প্রতি বছর দুই জন শিক্ষার্থীকে রুমানার রান্নাবান্না পরিবার বৃত্তির জন্য নির্বাচিত করবে।  রুমানার রান্নাবান্না পরিবার যা সিদ্ধান্ত নেবে, সেটাই চুড়ান্ত এবং কোথাও কোনো ধরণের সুপারিস গ্রহণযোগ্য না।

আবেদন করার জন্য এই ফর্মটি পুরণ করবে।