ভুঁড়ির কালা ভুনা / বট কালা ভুনা

বাংলাদেশের অনেক অঞ্চলে বট নামে পরিচিত হলেও, আমার এলাকায় আমরা বলি ভুঁড়ির কালা ভুনা। ভুঁড়ির কালা ভুনা দিয়ে ৪/৫টা পড়টা আমি নিমিষেই শেষ করে ফেলতে পারবো। আর কেনো, সেটা আপনি যদি না তৈরী করেন ট্রাই করেন, তাহলে বুঝবেন না।

দেখি তৈরী করার প্রক্রিয়া –

ইউটিউবে ভিডিও দেখতে সমস্যা হলে এই লিঙ্ক থেকে ডেইলি মোশনেও ভিডিওটি দেখতে পারেন।

তৈরী করতে যা যা লেগেছে…

  1. ভুঁড়ি ৪ কেজি
  2. পেঁয়াজ ২ কাপ
  3. রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
  4. আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
  5. রান্নার তেল ১ কাপ
  6. লবণ ১.৫ চা চামুচ
  7. শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  8. ধনে গুঁড়ি ১ টেবিল চামুচ
  9. হলুদের গুঁড়ি –
    1. সেদ্ধ করার সময় ১ টেবিল চামুচ
    2. রান্না করার সময় ০.৫ চা চামুচ
  10. ভাজা জিরা গুঁড়ি ২ চা চামুচ
  11. গরম মশলার গুঁড়ি ২ চা চামুচ
  12. ৫/৬ টি ছোটো এলাচ
  13. বড় এলাচ ২ টি
  14. ৪/৫ টি লবঙ্গ
  15. কালো গোল মরিচ ০.৫ চা চামুচ
  16. তেজ পাতা ৩ টি
  17. দারুচিনি ৬ সেন্টিমিটার
  18. ১৪/১৫ টি শুকনো মরিচ
  19. রসুনের কোয়া ০.৫ কাপ

গরম মশলার গুঁড়িতে যা আছে:

  1. জিরা – ১ চা চামুচ
  2. এলাচ – ৩/৪ টি
  3. দারুচিনি ৫ সেন্টি মিটারের মতো
  4. লং – ৭/৮ টি
  5. গোল মরিচ – ৭/৮ টি
  6. শাহী জিরা – ১ চা চামুচ (বেশী দিলে ভালো লাগবেনা)
  7. গোটা ধনিয়া – আধা চা চামুচ
  8. মৌরি – আধা চা চামুচ

গরম মশলা তৈরীর জন্য সব একসাথে গরম তাওয়ায় হালকা টেলে নিয়ে গুঁড়ো করেছি। তবে বাজার থেকে ভালো ব্র্যান্ডের রেডিমেড গরম মশলার গুঁড়িও ব্যবহার করা যাবে।


Tagged: