২৮
নভে.

বিয়ে বাড়ির ক্লাসিক চিকেন রোস্ট

বিয়ে বাড়ির মোস্ট ওয়ান্টেড আইটেম হলো মুরগির রোস্ট। কিন্তু মজার বিষয় হলো, মুরগির রোস্ট বিয়ে বাড়িতে পরিবেশন করা হয় একটা ফাঁকিবাজি রেসিপি হিসেবে। অনেক মানুষের জন্য খুব সহজে রান্না করা যায় বলেই বলছি এটা একটা ফাঁকিবাজি রেসিপি। এই চিকেন রোস্ট রান্না করতে কিন্তু তেমন কোনো ঝামেলাই নেই! আমার তো মনে হয়, বিয়ে বাড়ির মুরগির রোস্ট রান্না করা সাধারণ মুরগির মাংস রান্না করা থেকেও অনেক সহজ। এখনকার অনেক বাবুর্চি আবার সেইটুকু খাটনিও করতে চায় না। এক গাদা টেস্টিং সল্ট আর টমেটো কেচপ/সস দিয়ে কিছু একটা দাঁড় করিয়ে ফেলে। আমি এখন আপনাদেরকে রোস্টটা রান্না করে দেখাচছি আমার বাবুর্চির দেয়া ক্লাসিক রেসিপিতে। যেখানে কোনো টেস্টিং সল্ট বা টমেটোর সস নেই।

তৈরী করতে লাগছে –
▶ ২ টি ৭০০/৮০০ গ্রাম ওজনের মুরগির মাংস
▶ টক দৈ ১ কাপ
▶ পেঁয়াজ কুচি ২ কাপ
▶ শুকনো মরিচের গুঁড়ি ১ চা চামুচ
▶ লবণ ১ চা চামুচ
▶ ঘি ০.২৫ কাপ
▶ তেঁতুলের মাড় ১ টেবিল চামুচ
▶ কাঠবাদাম বাটা ২ টেবিল চামুচ
▶ দুধ ১ কাপ
▶ তেজ পাতা ৩ টি
▶ দারুচিনি ১২-১৫ সেঃমিঃ
▶ বড় এলাচ ৩ টি
▶ ছোটো এলাচ ৩/৪ টি
▶ ৬/৭ টি লবঙ্গ
▶ রসুন বাটা ১ টেবিল চামুচ
▶ আদা বাটা ১ টেবিল চামুচ
▶ কাঁচা মরিচ বাটা ১ টেবিল চামুচ
▶ চিনি ২ চা চামুচ
▶ আলু বোখারা ৫/৬ টি
▶ ৪/৫ টি কাঁচা মরিচ
▶ ০.২৫ কাপ গুঁড়ো দুধ

➡ আমি পুরো রান্নাটা করেছি ঘি দিয়ে, তাই ঘ্রাণ বাড়ানোর জন্য আলাদা করে জয়ফল/জয়ত্রী ব্যবহার করি নাই। দুধ আর ঘি দিয়ে রান্না করার জন্য অনেক বেশী ফ্লেভার আসে। আপনারা যদি সাধারণ রান্নার তেল দিয়ে রোস্টটা তৈরী করেন, তাহলে তেমন ফ্লেভার আসবে না। তাই যদি চান, আমি যখন গুঁড়ো দুধ দিলাম, তার ঠিক আগে সামান্য একটু জয়ত্রী দিতে পারেন। এই রোস্টে জয়ফলের দরকার নাই।

➡ তেঁতুলের মাড় তৈরী শিখতে এই ভিডিওটি দেখুন

✔ চাইনিজ/ইন্ডিয়ান রসুন মেশিনে বাটলে অনেক সময় সবুজ হয়, আবার অনেক কায়দা করে এটাকে সাদাও রাখা যায়। আমি মেশিনে করি দেখে মাঝে মাঝে আমার রসুন বাটা সবুজ হয়। আর যেহেতু রান্নায় দেয়ার পরে রঙ এর কোনো গুরুত্ব থাকছে না, তাই আমি রসুন বাটার রঙ সাদা করার কোনো প্রয়োজন বোধ করিনা।

তৈরী করার অভিজ্ঞতা আমাদের ফেসবুক গ্রুপে শেয়ার করতে ভুলবেন না। শেয়ার করে আপনিও জিতে নিতে পারেন একটি সুন্দর উপহার।